BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বন্ধ টালা ব্রিজ, ভোগান্তি লাঘবে চলবে বাড়তি মেট্রো

Published by: Sayani Sen |    Posted: October 12, 2019 9:36 am|    Updated: October 12, 2019 9:36 am

Due to Tala bridge closed Kolkata Metro decides to run more reck

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভাঙা হবে টালা ব্রিজ নাকি তা শুধুমাত্র সংস্কার হবে, তা নিয়ে এখনও জারি অনিশ্চয়তা। এদিকে, অনির্দিষ্টকালের জন্য টালা ব্রিজে যান চলাচল বন্ধ থাকায় চূড়ান্ত ভোগান্তির শিকার নিত্যযাত্রীরা। তাই সাধারণ মানুষের কথা ভেবেই অতিরিক্ত মেট্রো চালানোর সিদ্ধান্ত নিল কর্তৃপক্ষ।

[আরও পড়ুন: পুজো শেষের কার্নিভ্যাল, বিদায়বেলাতেও রেড রোডের মেগা শো ঘিরে খুশির ছোঁয়া]

মেট্রো কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী ১৪ অক্টোবর থেকে অতিরিক্ত মেট্রো চলবে। নোয়াপাড়া থেকে কবি সুভাষের দিকে অতিরিক্ত ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সপ্তাহের পাঁচদিন অর্থাৎ সোম থেকে শুক্র পর্যন্ত ২৮৪টি মেট্রো চলে। তবে নয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এখন ২৮৮ টি মেট্রো চালানো হবে। নোয়াপাড়া ও দমদমের মধ্যে মেট্রো চলবে ১১১টি ট্রেন। শনিবার নোয়াপাড়া থেকে কবি সুভাষের দিকে ২৩৬টি ট্রেন চালানো হবে। নোয়াপাড়া ও দমদমের মধ্যে ৯৯টি ট্রেন চালানো হবে। সপ্তাহান্তে রবিবারের পরিষেবায় কোনও পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।
টালা ব্রিজে যাতায়াতকারীদের ভোগান্তি কমাতে ইতিমধ্যেই বিবাদী বাগ এবং বারাকপুর স্টেশনের মধ্যে ৩ জোড়া বিশেষ ইএমইউ ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পূর্ব রেল। এছাড়াও ব্রিজ বন্ধ থাকার ফলে লোকসানের জেরে ৩৪ সি রুটের বাসও আপাতত চলবে না। নোয়াপাড়া-ধর্মতলা যেত এই বাসটি। ওই রুটে চলা ২০টি বাস বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ভোগান্তি যে আরও বাড়বে তা বোঝাই যাচ্ছে।

[আরও পড়ুন: কোটি টাকা নিয়ে প্রতারিতের হাতেই অপহৃত প্রতারক, পুলিশের জালে ৫]

এদিকে, টালা ব্রিজ নিয়ে বৈঠক হওয়ার কথা থাকলেও তা পিছিয়ে গেল। নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পৌরোহিত্যে শনিবার মুখ্যসচিব-সহ পূর্ত দপ্তরের লোকজনের বৈঠকে বসার কথা ছিল। সেখানে পরিস্থিতি বিবেচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ করার কথা। কিন্তু শনিবার ছুটির দিন বলেই বৈঠক হচ্ছে না। আগামী সপ্তাহে এই বৈঠক হতে পারে। টালা ব্রিজ ভেঙে ফেলার জন্য ইতিমধ্যেই সুপারিশ করেছে বিশেষজ্ঞ কমিটি। ওই কমিটির পর্যবেক্ষণ, ব্রিজ ভারী যান চলাচলের পক্ষে উপযুক্ত তো নয়ই, বর্তমান অবস্থা বিপজ্জনক। উৎসবের মরসুম বলেই আপাতত ছোট গাড়ি চলার ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। সরকার চায় দীপাবলি পর্যন্ত স্থিতাবস্থা বজায় থাক। এ নিয়ে অবশ্য কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। সবকিছু খতিয়ে দেখে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা ছিল শনিবারের বৈঠকে। সেই বৈঠক পিছিয়ে গেল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে