BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বীরেন্দ্রকৃষ্ণের চণ্ডীপাঠ হোক পুজোর ৭ দিন আগেও, আকাশবাণীর কাছে আবেদন পুরোহিতদের

Published by: Suparna Majumder |    Posted: September 3, 2020 10:11 am|    Updated: September 3, 2020 4:06 pm

An Images

গৌতম ব্রহ্ম: তিথি-নক্ষত্রের মহা গেরো। ফলে এবার পিতৃপক্ষ শেষে শুরু হচ্ছে না দেবীপক্ষ। মাঝে ঢুকে পড়েছে মল-আশ্বিন। তাই মায়ের পুজো এবার কার্তিকে।  

কিন্তু বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্রর চণ্ডীপাঠ? শাস্ত্র মেনে ১৭ সেপ্টেম্বর, মহালয়ার দিন সেই ঐতিহ্যবাহী অনুষ্ঠান সম্প্রচার হবে? না কি পুজোর সাতদিন আগে, ১৬ অক্টোবর? 

না কি দু’দিনই বাজবে সুপ্রীতি ঘোষের আলোর বেণু?  

পাঁজির ফেরে ২০০১ সালেও মহালয়ার এক মাস পর দুর্গাপুজো পড়েছিল। সেবার পুরোহিতদের একাংশ আকাশবাণী কর্তৃপক্ষকে পুজোর ৭ দিন আগে বীরেন্দ্রকৃষ্ণের প্রভাতি অনুষ্ঠান চালানোর অনুরোধ জানান। এবারও সেই অনুরোধ রাখে বৈদিক পণ্ডিত ও পুরোহিত মহামিলন কেন্দ্র। সংগঠনের সম্পাদক পণ্ডিত নিতাই চক্রবর্তী বুধবার এ খবর জানিয়ে বলেন, “এ বছর মহালয়া বিশ্বকর্মা পুজোর দিন। মানে ১৭ সেপ্টেম্বর (৩১ ভাদ্র)। ষষ্ঠী ২২ অক্টোবর। ১৭ অক্টোবর দেবীপক্ষ শুরু। তার আগের দিন মহালয়ার প্রভাতি অনুষ্ঠান সম্প্রচারের অনুরোধ করা হয়েছে। ২০০১ সালের মতো এবারও আশা করি অনুরোধ রাখা হবে।”  

[আরও পড়ুন: বাড়ি বসে বই খুলেই স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে দেওয়া যাবে পরীক্ষা, জানাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়]

কোনও মাসে দু’টি অমাবস্যা হলে পরের মাসটি ‘মল মাস’ হয়ে যায়।  এবারের ভাদ্রে তাই হয়েছে। দু’টি অমাবস্যা। একটি ২ ভাদ্র (কৌশিকী অমাবস্যা), অন্যটি ৩১ ভাদ্র, মানে বিশ্বকর্মার পুজোর দিন। ফলে আশ্বিন মাস মল মাস হয়ে যাচ্ছে।   পরিণামে মহালয়া ভাদ্রে হলেও দেবীর বোধন কার্তিকে। দেবীপক্ষ শুরু সাতদিন আগে, অর্থাৎ ১৭ অক্টোবর। নিতাইবাবুদের মতে, পুজোর ৭ দিন আগে মহালয়া শুনতেই বাঙালি অভ্যস্ত। মহালয়ার পরেই দেবীপক্ষের সূচনা। বহু জায়গায় প্রতিপদে ঘট বসে। শাস্ত্র মেনে পুজোর প্রক্রিয়া শুরু হয়। তাই সাতদিন আগে প্রভাতি অনুষ্ঠান হওয়াই বাঞ্ছনীয়।  

পুরোহিতদের আর এক সংগঠন ‘বঙ্গীয় পুরোহিত কল্যাণ পরিষদ’ অবশ্য সাফ জানিয়ে দিয়েছে, শাস্ত্র মেনেই ১৭ সেপ্টেম্বর মহালয়া সম্প্রচার হওয়া উচিত। পরিষদের সম্পাদক সুরজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের বক্তব্য, ওই চণ্ডীপাঠ শুনেই পিতৃপুরুষের উদ্দেশে তর্পণ করা প্রথায় দাঁড়িয়েছে। তা বদলানো অবাঞ্ছিত। তবে মানুষের সুবিধার্থে পুজোর ৭ দিন আগে দ্বিতীয় বার সম্প্রচার করা যেতেই পারে। বুধবার থেকে পিতৃপক্ষের শুরু হয়ে গিয়েছে। কিন্তু দেবীপক্ষ শুরু ১৭ অক্টোবর। তার পরের দিন শুরু কার্তিক মাস। শাস্ত্রমতে এবার কার্তিকই শুদ্ধ আশ্বিন। তবে কি এবার দু’বার বেতারে বীরেন্দ্রকৃষ্ণের পাঠ শোনা যাবে?

[আরও পড়ুন: সেপ্টেম্বরে রাজ্যে হবেই লকডাউন, কেন্দ্রের নির্দেশিকার সমালোচনা করে দাবি মুখ্যমন্ত্রীর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement