BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সোনারপুরে বৃদ্ধাকে গণধর্ষণ করে খুন, বাড়ির কাছেই বাগানে মিলল নগ্ন দেহ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 17, 2018 6:32 am|    Updated: January 17, 2018 6:37 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  একদিন নিখোঁজ থাকার পর, বাড়ির কাছে বাগান থেকে এক বৃদ্ধার নগ্ন দেহ উদ্ধার করল পুলিশ। ঘটনাস্থলে মিলল মদের গ্লাস ও খাবার। পুলিশের সন্দেহ, গণধর্ষণ করে ওই বৃদ্ধাকে খুন করা হয়েছে। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে সোনারপুরে

[পরকীয়ার ‘অপবাদ’ দিয়ে বধূকে গাছে বেঁধে মার]

জানা গিয়েছে, সোনারপুরের চাকবেড়িয়া এলাকায় থাকতেন ওই বৃদ্ধা। মঙ্গলবার থেকে তাঁর কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, বুধবার সকালে বাড়ির থেকে মাত্র পাঁচশো মিটার দূরে একটি বাগানে ষাটোর্ধ্ব ওই মহিলার নগ্ন দেহ পড়ে থাকতে দেখেন তাঁরা। খবর দেওয়া হয় সোনারপুর থানায়। ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। মেলে মদের গ্লাস ও খাবারও। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মৃতার মুখে ইঁট দিয়ে থেতলানো ছিল। দেহেও একাধিক আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গিয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, অভিযুক্তরা সকলেই মদ্যপ ছিল। তাদের বিকৃত যৌন লালসার শিকার হয়েছেন ওই বৃদ্ধা। নেশার ঘোরে  তাকে গণধর্ষণ করে মদ্যপ যুবকরা। অভিযুক্তদের চিনে ফেলায় ওই বৃদ্ধাকে খুন করা হয়। বুধবার সকালে এই ঘটনা জানাজানি হতেই তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। অভিযুক্তদের কঠোর শাস্তির দাবি তুলেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তবে ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

[চাকদহে পণের দাবিতে ‘খুন’ স্ত্রী, গ্রেপ্তার পুলিশকর্মী]

বছরে তিনেক আগের ঘটনা। রানাঘাটে গাংনাপুরে একটি কনভেন্ট স্কুলে হানা দেয় একদল দুষ্কৃতীরা। লুটপাটের পর এক বৃদ্ধ সন্ন্যাসিনীকে ধর্ষণ করা হয়। ঘটনায় শোরগোল পড়েছিল রাজ্যে। সিআইডির তদন্ত শেষে ছয় জনকে অভিযুক্তকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালত। বৃদ্ধা সন্ন্যাসিনীকে ধর্ষণের অপরাধে মূল অভিযুক্ত নজরুল ইসলামের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়। বাকি চারজনকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের সাজা দেন বিচারক। ৭ বছর কারাদণ্ডের সাজা পায় অপর এক ব্যক্তি।

[বাঙালির স্বাদের আহ্লাদ মেটাচ্ছে আদিসপ্তগ্রামের পাঁচ শতকের পুরনো মাছের মেলা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement