BREAKING NEWS

৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

নারকেলডাঙায় লক্ষাধিক টাকার জালনোট উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৪

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: January 4, 2019 2:42 pm|    Updated: January 4, 2019 2:42 pm

Fake note recovered in Narkheldanga

সুব্রত বিশ্বাস: শহরে জালনোট চক্রের পর্দাফাঁস। উত্তর কলকাতার নারকেলডাঙায় ধরা পড়ল চারজন। ধৃতদের কাছ থেকে ৪ লক্ষ ২৫ হাজার টাকার জালনোট উদ্ধার করেছে কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স বা এসটিএফ।

[ শ্বশুরবাড়িতে লাগাতার ভাসুরের ধর্ষণ, শহরে বিকৃতকাম যৌনতার শিকার বধূ]

খাস কলকাতায়ও রমরমিয়ে চলছে জালনোটের কারবার। বৃহস্পতিবার রাতে নারকেলডাঙার মহারানি স্বর্ণময়ী স্ট্রিটের ফুটপাতে জড়ো হয়েছিল চার যুবক। তাদের মধ্যে দু’জন এ শহরেরই বাসিন্দা। বাকিদের মধ্যে একজনের বাড়ি মধ্যমগ্রামে আর একজন এসেছিল মালদহের বৈষ্ণবনগর থেকে। চারজনকেই হাতনাতে ধরে ফেলে কলকাতা পুলিশের এসটিএফ। লালবাজারের গোয়েন্দারা জানিয়েছেন, ওই চারজন জালনোটের কারবারের সঙ্গে যুক্ত। মহারানি স্বর্ণময়ী স্ট্রিটের ফুটপাতে দাঁড়িয়ে নিজেদের মধ্যে জালনোট আদানপ্রদান করছিল তারা। কিন্তু শেষরক্ষা হল না। শহরে জালনোট চক্রের খবর পৌঁছে যায় লালবাজারে। এরপরই গ্রেপ্তার করা হয় তাদের৷ ধৃতদের কাছ থেকে ৪ লক্ষ ২৫ হাজার টাকার জালনোট উদ্ধার করেছেন লালবাজারের গোয়েন্দারা।

জানা গিয়েছে, ধৃতেরা হল প্রশান্ত মজুমদার ওরফে রাজা, মহম্মদ আক্রম আলি, আনারুল হক ওরফে সাদ্দাম ও মহম্মদ গুড্ডু খুরেশি। আক্রম তিলজলার বাসিন্দা, গুড্ডুর বাড়ির তপসিয়ায়। উত্তর ২৪ পরগনার মধ্যমগ্রামের বিবেকানন্দ পল্লিতে থাকে প্রশান্ত। আর মালদহের বৈষ্ণবনগর থেকে কলকাতায় এসেছিল আনারুল হক ওরফে সাদ্দাম। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, ওই চারজনের কাছ থেকে দু’হাজার টাকার ১৬৩টি ও পাঁচশো টাকার ১৯৮টি জালনোট পাওয়া গিয়েছে।   

[অতিরিক্ত ট্রিপেই বাড়ছে বিপত্তি, আতঙ্কের ছায়া মেট্রোযাত্রায়]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে