BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৮  রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

উচ্চপদস্থ Police আধিকারিক পরিচয়ে ৪৮ লক্ষ টাকা প্রতারণা, গ্রেপ্তার প্রাক্তন Civic Volunteer

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 28, 2021 10:40 am|    Updated: July 28, 2021 10:40 am

Fake police officer arrested in Kolkata । Sangbad Pratidin

অর্ণব আইচ: ফের ভুয়ো পুলিশ আধিকারিকের (Fake Police Officer) সন্ধান মিলল কলকাতায়। ধৃত যুবক প্রাক্তন সিভিক ভলান্টিয়ার। নিজেকে উচ্চপদস্থ পুলিশ আধিকারিক পরিচয় দিত সে। এই পরিচয় ঠিকাদারের কাছ থেকে ৪৮ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় বলে অভিযোগ। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে লালবাজারের গোয়েন্দা বিভাগ সুমন ভৌমিক নামে ওই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে।

রাজদেও সিং নামে এক ঠিকাদারের অভিযোগের ভিত্তিতেই সুমনের পর্দাফাঁস হয়। তিনি চলতি মাসেই চারুমার্কেট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তিনি জানান, সুমন নিজেকে কখনও বিধাননগর কমিশনারেটের টেন্ডার বিভাগের এসআই। আবার কখনও বিধাননগর কমিশনারেটের অ্যাডিশনাল ডিসি বলে পরিচয় দিত। ওই পরিচয় দিয়ে টেন্ডার পাইয়ে দেওয়ার নাম করে তাঁর থেকে ৪৮ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে অভিয়োগ। ওই ব্যক্তির অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। তদন্তে নেমে পুলিশ সুমন ভৌমিক নামে ওই যুবককে গ্রেপ্তার করে। তাকে জেরা করে পুলিশ জানতে পেরেছে, ধৃত বিধাননগর কমিশনারেটের প্রাক্তন সিভিক ভলান্টিয়ার (Ex Civic Volunteer)। কাজ চলে যাওয়ার পর থেকে এভাবে প্রতারণা করছিল সে। ধৃতের কাছ থেকে দুটি মোবাইল, দুটি ল্যাপটপ এবং ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত কিছু নথিপত্র বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। সুমনের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২০ বি, ৪২০, ৪১৯, ৪৬৭, ৪৬৮, ৪৭১ ধারায় মামলা রুজু হয়েছে।

[আরও পড়ুন: Exclusive: ত্রিপুরা সফরের শুরুতেই বাধা, আগরতলা বিমানবন্দরে আটকানো হল TMC প্রতিনিধি দলকে]

এদিকে, সোমবার রাতে পুলিশের জালে ধরা পড়ে ভুয়ো আইপিএস আধিকারিক (Fake IPS Officer)। বেলঘরিয়ার বাসিন্দা রাজর্ষি ভট্টাচার্য নিজেকে কলকাতা পুলিশের স্পেশ্যাল দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারের পরিচয় দিত। অনেকদিন ধরেই নীল বাতির গাড়ি চড়ে ঘুরে বেড়াত সে। প্রাথমিকভাবে তার ভুয়ো পরিচয় কেউ ধরতেই পারেনি। কিন্তু তোলা আদায়ের চেষ্টা করতে সংশয় হয়। জাকির হোসেন নামে এক ব্যক্তি অভিযোগ করেন তার বিরুদ্ধে। অভিযোগ পেতেই লালবাজারের পুলিশ কর্তারা তদন্ত শুরু করে। তারপরই পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। তার দুই সঙ্গী অভিজিৎ দাস ও মহম্মদ সিকান্দারও গ্রেপ্তার হয়েছে। ভুয়ো আইপিএসের দক্ষিণেশ্বরের বাড়িতে তল্লাশি চালায় পুলিশ। সেখান থেকে রাইফেল, দোনলা বন্দুক, এয়ারগান এবং পিস্তল পাওয়া গিয়েছে। এছাড়াও প্রচুর গুলি উদ্ধার হয়েছে। বাড়ি থেকে অশোকস্তম্ভ লাগানো আইপিএসের পোশাক এবং ওয়াকি টকি উদ্ধার হয়েছে। কী কারণে সে বাড়িতে আগ্নেয়াস্ত্র মজুত করল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: খোলামেলা পোশাকে দিতিপ্রিয়া, ছবি দেখে Love পাঠালেন ‘মথুরা মোহন’!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×