০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এবার বাড়িতে জল জমলে দিতে হবে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা!

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: November 27, 2018 9:14 am|    Updated: November 27, 2018 9:19 am

Fine For water logging

দীপংকর মণ্ডল: দিনের পর দিন বাড়িতে তালা দেওয়া। বাগানে বা ছাদে জমা জলে ডিম পাড়ছে মশা। হুঁশ নেই গৃহকর্তার। মশা বাহিত ম্যালেরিয়া এবং ডেঙ্গুর মতো রোগে জর্জরিত প্রতিবেশীরা। এই ছবি মুছে ফেলতে সক্রিয় হল রাজ্য সরকার। জমা জলের সন্ধান পেলে এক হাজার থেকে এক লক্ষ টাকা জরিমানা করা হবে। বিধানসভায় পুর আইনে সংশোধনী এনে রাজ্যের সমস্ত পুরসভার জন্য এই নয়া জরিমানা ধার্য হয়েছে।

[ দীর্ঘ আন্দোলনের পর হিন্দু হস্টেল ফিরে পেলেন প্রেসিডেন্সির পড়ুয়ারা]

পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, “একজনকেও জরিমানা দিতে হোক তা আমরা চাই না। পুরসভা শাস্তি দিতে পারে না। কিন্তু কিছু মানুষের জন্য অন্যরা ভুগবেন এমনটাও চলতে পারে না। জল জমার খবর পেলে নির্দিষ্ট পুরসভা এবার বড় অঙ্কের জরিমানা করবে। তা উদ্ধার না হলে নোটিস যাবে। তারপর আইনত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।” রাজ্যের ১১৮ টি পুরসভায় জল জমলে ‘স্পট ফাইন’ এক হাজার ও প্রতিদিনের জন্য ১৫০ টাকা করে জরিমানা নেওয়ার আইন আছে। সংশোধনীতে জরিমানার পরিমাণ বাড়ানো হয়েছে।শুধু জল জমাই নয়, কলকাতার মতোই এবার জেলা শহরগুলিতে যেখানে-সেখানে জঞ্জাল ফেললেও জরিমানা করবে পুরসভা। জঞ্জাল ফেললে পুরসভাগুলিতে ৫০ থেকে ৫০০ টাকা জরিমানা হয়। এবার থেকে জঞ্জাল ফেললে ৫০০ থেকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে। ইতিমধ্যে কলকাতা পুরসভা আইনে সংশোধনী এনে সরকার ঘোষণা করেছে এ শহরে যেখানে-সেখানে জঞ্জাল ফেললে পাঁচ হাজার থেকে এক লক্ষ টাকা জরিমানা হবে।

কিন্তু, কেউ যদি পুরসভাকে জরিমানা না দেয়, তাহলে? পুর দফতর জানিয়েছে, মহারাষ্ট্রের মতো পুরসভার আলাদা পুলিশ নেই। তবে টাকা না দিলে প্রথমে নোটিস ও পরে অভিযুক্তর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।রাজ্য সরকারের আশা, কড়া পদক্ষেপের ফলে জমা জল, এবং জঞ্জালের সমস্যা কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রণে আসবে।

[ ইঁদুরই বয়ে নিয়ে আসছে মারণ রোগ, আতঙ্ক বাড়ছে শহরে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে