×

৯ চৈত্র  ১৪২৫  সোমবার ২৫ মার্চ ২০১৯   |   শুভ দোলযাত্রা।

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাগুইআটির জগৎপুর বাজারে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড৷ পুড়ে ছাই কেষ্টপুর খাল সংলগ্ন পনেরোটি দোকান৷ দমকলের আটটি ইঞ্জিনের প্রায় ঘণ্টাখানেকের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে৷ তবে, অধিকাংশ দোকানে দাহ্য পদার্থ মজুত থাকায় আগুন নেভাতে দমকলকর্মীদের যথেষ্ট বেগ পেতে হয়৷ কীভাবে দোকানগুলিতে আগুন লাগল,তা এখনও জানতে পারেননি দমকল কর্মীরা৷

[লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের টিকিট পেলেন না যাঁরা, দেখুন একনজরে]

কেষ্টপুর খাল লাগোয়া এলাকায় পরপর সারি দিয়ে প্রায় ২০টি অস্থায়ী দোকান ছিল৷ কোনও দোকানে বিক্রি হত চা, তো কোনও দোকান মোবাইল সারাইয়ের৷ বিকিকিনির পর বেশিরভাগ ব্যবসায়ীরা ওই দোকানেই রাত কাটাতেন৷ ঘড়ির কাঁটায় তখন ভোর সাড়ে তিনটে৷ আচমকাই ধোঁয়ায় ঢেকে যায় একটি চায়ের দোকান৷ ঘুমের ঘোরে কিছু বুঝে ওঠার আগেই পরপর ১৫টি দোকানে আগুন ছড়িয়ে পড়ে৷ চিৎকার চেঁচামেচিতে ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি স্থানীয় বাসিন্দারাও জড়ো হয়ে যান৷ ঘটনাস্থলে এসে প্রাথমিকভাবে আগুন নেভানোর কাজে হাত লাগান তাঁরা৷ ইতিমধ্যেই খবর পৌঁছায় দমকলে৷ একে একে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকলের আটটি ইঞ্জিন৷ অগ্নিদগ্ধ দোকানগুলিতে দাহ্য পদার্থ মজুত থাকায় আগুন নেভাতে যথেষ্ট বেগ পেতে হয় দমকলকর্মীদের৷ প্রায় ঘণ্টাখানেকের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে৷ আগুন নিভে গেলেও, বুধবার সকালে ওই এলাকা দিয়ে ধোঁয়া বেরোতে দেখা গিয়েছে৷ আপাতত দমকলকর্মীরা কুলিং প্রসেস চালিয়ে যাচ্ছেন৷ অগ্নিকাণ্ডের নিশ্চিত কারণ এখনও জানা যায়নি৷ তবে প্রাথমিকভাবে দমকলকর্মীদের অনুমান, শর্ট সার্কিট থেকেই হয় তো জগৎপুর বাজারে আগুন লেগেছে৷জগৎপুর বাজারে অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল কী না, তা খতিয়ে দেখছেন দমকলকর্মীরা৷ 

[জেতার ক্ষমতা থাকলে তবেই প্রার্থী, বঙ্গ বিজেপিকে স্পষ্টবার্তা অমিতের]

অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে অন্তত ১৫টি দোকান৷ ব্যবসায়ীদের দাবি, কয়েক লক্ষ টাকা ক্ষতি হয়েছে তাঁদের৷ চোখের সামনে একের পর এক দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যাওয়ার ঘটনায় ভেঙে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা৷ কীভাবে সংসার চালাবেন, সেই চিন্তাই এখন গ্রাস করেছে তাঁদের৷ 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং