Advertisement
Advertisement
Kolkata

সাতসকালে ধাপার কাছে ঘিঞ্জি এলাকায় অগ্নিকাণ্ড, কালো ধোঁয়ায় ঢাকল আকাশ

প্রগতি ময়দান থানা এলাকার ঘিঞ্জি বসতিপূর্ণ জায়গায় আগুন লেগে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। দমকলের ৩ টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেছে। আতঙ্কিত এলাকাবাসী।

Fire broke out in Dhapa area, Kolkata, three fire engines on spot
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:April 8, 2024 9:00 am
  • Updated:April 8, 2024 11:47 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাতসকালে ফের কলকাতায় (Kolkata)অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ছড়াল আতঙ্ক। প্রগতি ময়দান থানা এলাকায় ধাপার কাছে এক প্লাস্টিকের কারখানায় আচমকা আগুন (Fire) লাগে। ঘিঞ্জি এলাকা হওয়ায় দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ে। নিমেষের মধ্যে কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায় আকাশ। আতঙ্কিত হয়ে পড়েন এলাকাবাসী।

ধাপার কাছে প্লাস্টিক কারখানায় আগুন। নিজস্ব চিত্র।

জানা গিয়েছে, সোমবার সকাল সাড়ে ৬টা নাগাদ ইএম বাইপাস (EM Bypass) লাগোয়া প্রগতি ময়দান থানা এলাকার ১২ নং বহিশতলায় আচমকা আগুন লেগে যায় একটি প্লাস্টিকের কারখানায়। পাশেই স্তূপ করে রাখা ছিল ডেকরেটর্স সামগ্রীর জিনিসপত্র। দাহ্য বস্তু হওয়ায় দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ে। আকাশ কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায়। তাতেই ছড়ায় তীব্র আতঙ্ক। এলাকাবাসী ঘর ছেড়ে বাইরে বেরিয়ে আসেন। অগ্নিকাণ্ডের খবর পাঠানো হয় দমকলে। সঙ্গে সঙ্গে ৩টি ইঞ্জিন (Fire tender) ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ শুরু করে। কিন্তু ঘিঞ্জি এলাকা হওয়ায় কাজ করতে অসুবিধায় পড়েন দমকল কর্মীরা। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: মধুর প্রতিশোধেই জয়ের হ্যাটট্রিক, গুজরাটের ব্যাটিং অর্ডারে ধস নামিয়ে বাজিমাত লখনউয়ের]

প্রায় ঘণ্টা দুয়েকের চেষ্টায় আগুন আপাতত নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে দমকল কর্মীরা জানান, কোথাও কোথাও পকেট ফায়ার রয়েছে। দাহ্য বস্তু থাকার কারণেই এত বড় আগুন লাগল। প্লাস্টিকের কারখানাটি প্রায় পুড়ে গিয়েছে। পাশে থাকা ডেকরেটর্সের সামগ্রীর অনেকটাই ভস্মীভূত। এলাকার বাসিন্দারা জানাচ্ছেন, জনবসতির পাশেই গত ৫ বছর ধরে একটি প্লাস্টিকের কারখানা চলছে। তাঁরা বহুবার  আপত্তি জানিয়েছিলেন। তবে তাতে কেউ কর্ণপাত করেননি। সোমবার অগ্নিকাণ্ডের পর গুদামের মালিক বা কর্মীদের কাউকে ঘটনাস্থলে দেখা যায়নি। রাতে কারখানা বন্ধই ছিল। তা সত্ত্বেও সকালের দিকে কীভাবে আগুন লাগল, তা বুঝতে পারছেন না কেউই। দমকল সূত্রে খবর, গুদাম মালিক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে ঘটনার কথা জানানো হয়েছে। দ্রুত তদন্ত শুরু হবে।  

Advertisement

[আরও পড়ুন: স্বামী বা স্ত্রী বেসরকারি চাকরি করলেও বন্ধ করা যাবে না বাড়িভাড়া ভাতা, রাজ্যকে নির্দেশ হাই কোর্টের]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ