২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: এটিএম জালিয়াতি নিয়ে কেন্দ্রের আধার লিংক প্রক্রিয়াকে কাঠগড়ায় তুলল তৃণমূল। মঙ্গলবার রাজ্য বিধানসভায় এ নিয়ে সরব হন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে ‘গব্বর সিং’ বলে আক্রমণ করেন। সরাসরি কেন্দ্রের সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই এই আধার কার্ড লিংকের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। আমরাও বিষয়টাতে উদ্বিগ্ন। এই আধার লিংক করে কেন্দ্র সরকার কাদের কী সুযোগ পাইয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে জানি না। আমরা এর বিরোধিতা করছি।”

বিধানসভায় এদিন যাদবপুরের এটিএম লুট নিয়ে সরব হন বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী। উদ্বেগের প্রসঙ্গ তুলে বলেন, “ব্যাংকে টাকা রাখা নিরাপদ নয়। মানুষের মধ্যে উৎকণ্ঠা বেড়েছে। দিল্লির ঠিকানা থেকে ব্যাংকে রাখা টাকা লুঠ হচ্ছে।” তাঁর প্রশ্ন, “আধার কার্ড লিংক করা কি ঠিক হচ্ছে? মানুষের কোনও গোপনীয়তা থাকছে না।” এর পরই জবাব দিতে উঠে তাঁর বক্তব্যকে সমর্থন করেন মন্ত্রী। নোটবন্দির প্রসঙ্গ টেনে কেন্দ্রকে বেঁধেন। বলেন, “নোটবন্দির পর ঘরে টাকা রাখা যাবে না। আর ব্যাংকে টাকা রাখলে সেগুলো চিটিংবাজদের হাতে চলে যাচ্ছে।”

[আরও পড়ুন: গঙ্গার ভাঙন রোধে সদর্থক ভূমিকা নেই কেন্দ্রের, বিধানসভায় বিজেপিকে তোপ শুভেন্দুর]

এরপরই বিধানসভার লবিতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন। সেখানে আবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে আক্রমণ করেন। বলেন, “অমিত শাহ গব্বর সিং হয়ে ঢুকে পড়েছে। টাকা চুরির তদন্তে এজেন্সিগুলোকে কাজে না লাগিয়ে বিরোধীদের থ্রেট করার কাজে লাগাচ্ছে।” তাঁর মন্তব্য, “বিজেপির সরকারের আমলে দেশের মানুষ নিরাপদ নয়। কলকাতার টাকা উত্তরপ্রদেশ থেকে অপারেট করে তুলে নেওয়া হচ্ছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় সরকার এসবের দায়িত্ব এড়াতে পারে না।” এদিনই আবার কলকাতা থেকে একটি দল দিল্লির উদ্দেশে রওনা দিয়েছে। দুষ্কৃতীদের ধরতে এথিক্যাল হ্যাকারের সাহায্য নেওয়া হচ্ছে। সহযোগিতা করছেন বিশেষজ্ঞরাও।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং