BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দীর্ঘ অপেক্ষা শেষে ফের ভারত-বাংলাদেশ উড়ান চালু , বুধবারই কলকাতায় নামছে ঢাকার বিমান

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 27, 2020 10:16 pm|    Updated: October 27, 2020 10:18 pm

An Images

কলহার মুখোপাধ্যায়, বিধাননগর: নিকটতম প্রতিবেশী রাষ্ট্রের সঙ্গে আকাশপথে যোগাযোগ বন্ধ ছিল টানা ৭ মাস ১০ দিন। করোনার কারণে বাংলাদেশের সঙ্গে ভারত বিমান যাতায়াত করছিল না। তবে দীর্ঘ সময় পর বুধবার থেকে তা আবার চালু হয়ে যাচ্ছে। দমদম বিমানবন্দর সূত্রে খবর, বুধবার সকালেই ঢাকা (Dhaka) থেকে কলকাতায় (Kolkata) এসে নামবে যাত্রীবাহী বিমান।

দেশজুড়ে লকডাউন জারি হওয়ার আগে, গত ১২ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে কলকাতা-ঢাকার বিমান যোগাযোগ। ফের তা চালুর সিদ্ধান্তে স্বস্তিতে যাত্রীরা। দমদম বিমানবন্দর (Dumdum Airport) সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সকাল ১০টা ১৫ মিনিট নাগাদ ঢাকা থেকে যাত্রীবাহী বিমান নামবে দমদম বিমানবন্দরে। আর বৃহস্পতিবার থেকে দিল্লি ও চেন্নাই থেকে ঢাকাগামী বিমান যাতায়াত করবে। আপাতত ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান চলবে দু’দেশের মধ্যে। পরবর্তীকালে ইন্ডিগো-সহ অন্যান্য এয়ারলাইনস সংস্থার বিমান চালানো হতে পারে। খুব শীঘ্রই সপ্তাহে ৭টি বিমান ঢাকা-কলকাতা আসাযাওয়া করবে বলে জানা গিয়েছে।

[আরও পডুন: ‘নো এন্ট্রি’র নির্দেশ সত্ত্বেও মণ্ডপে ঢুকে অঞ্জলি, বুধবারই আইনি নোটিস পাচ্ছেন নুসরত-সৃজিতরা]

রাজ্য সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী, বাংলাদেশ থেকে যে সমস্ত যাত্রী কলকাতায় আসবেন, তাঁদের করোনা পরীক্ষার নেগেটিভ রিপোর্ট সঙ্গে থাকা বাধ্যতামূলক। আরটিপিসিআর (RT-PCR) টেস্ট করানোর পরই বিমানে ওঠার ছাড়পত্র পাবেন কলকাতা আসতে চাওয়া যাত্রীরা। বিমানে ওঠার আগে যাত্রীদের করোনা রিপোর্ট ওয়েবসাইটে দিয়ে দেওয়া বাধ্যতামূলক।

[আরও পডুন: প্রতিমা নিরঞ্জন নিয়ে ব্যাপক সংঘর্ষ তৃণমূল ও বিজেপির, ফের উত্তপ্ত রাজারহাট]

এর আগে দেখা গিয়েছে, লন্ডন থেকে কলকাতায় যারা আসছেন, তাঁরা অনেকেই করোনার নেগেটিভ রিপোর্ট নিয়ে আসছেন না। সেক্ষেত্রে কলকাতা বিমানবন্দরে লন্ডন থেকে আসা যাত্রীদের করোনা পরীক্ষা করানো হচ্ছে। ‌গত সপ্তাহ থেকেই তা চালু হয়েছে। তাতে গত বুধবার ৯ জন যাত্রীর করোনা পরীক্ষা করা হয়। সকলেরই রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। তবে শনিবার যে বিমানটি লন্ডন থেকে কলকাতায় আসে, তাতে একজন যাত্রীর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ ধরা পড়ে। তাঁকে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়। বাকিদেরও পরীক্ষা করিয়ে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশের যাত্রীদের একটা বড় অংশই চিকিৎসার প্রয়োজনে কলকাতায় আসেন। করোনা সংক্রমণ নিয়ে কলকাতায় নামা যাবে না, তা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement