BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সিবিআই থেকে ‘বাঁচতে’ হাই কোর্টের দ্বারস্থ রাজীব কুমার

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: May 30, 2019 11:26 am|    Updated: May 30, 2019 11:42 am

An Images

ফাইল চিত্র

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অব্যাহত রাজীব কুমার-সিবিআই ইঁদুর দৌড়৷ এবার কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ কলকাতা পুলিশের প্রাক্তন নগরপাল৷ সিবিআই নোটিস খারিজ করার আবেদন জনিয়ে বৃহস্পতিবার আদালতে আবেদন জানিয়েছেন প্রাক্তন সিট কর্তা৷

[মোদি মন্ত্রিসভার শপথে মাতছে কলকাতাও, বাড়ি বাড়ি বিলি লাখখানেক লাড্ডু]

জানা গিয়েছে, এদিন বিচারপতি প্রতীকপ্রকাশ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সিঙ্গল বেঞ্চে আবেদন জানিয়েছেন রাজীব কুমারের আইনজীবী৷ আজই এই আবেদনের শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে৷ সিবিআই সূত্রে খবর, বারাসত আদালতে আগাম জামিনের আবেদন করতে পারেন রাজীব কুমার বলে আন্দাজ করেছিলেন তাঁরা৷ সেইমতো গত কয়েকদিন ধরেই সেখানে উপস্থিত রয়েছেন সিবিআইয়ের আইনজীবী৷ কিন্তু তা না করে এদিন সরাসরি হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন কলকাতার প্রাক্তন নগরপাল৷ এদিকে, বৃহস্পতিবার সকালে ফের সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে সিবিআইয়ের দপ্তরে হাজিরা দিয়েছেন বিধাননগরের প্রাক্তন গোয়েন্দা প্রধান অর্ণব ঘোষ৷ গতকাল টানা নয় ঘণ্টা জেরা করার পরও সন্তুষ্ট হতে পারেননি তদন্তকারীরা৷ ফলে ফের তাঁকে এদিন ডেকে পাঠানো হয়েছে বলে খবর৷ একই সঙ্গে এদিন একটি বড় ট্রাঙ্ক ভরতি সারদা মামলা সংক্রান্ত নথি এসে পৌঁছায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটির দপ্তরে৷

উল্লেখ্য, গত সোমবার হাজিরা এড়িয়ে যান রাজীব কুমার। তারপর দুপুরে সিআইডি আধিকারিকদের মাধ্যমে সিবিআই দপ্তরে বাড়তি সময় চেয়ে চিঠি পাঠান তিনি। সূত্রের খবর, ওই চিঠিতে বলা হয়, পারিবারিক কিছু কাজে তিনি ব্যস্ত রয়েছেন উত্তরপ্রদেশের বাড়িতে। সেই কারণে সোমবার সিবিআই দপ্তরে যেতে পারেননি। পারিবারিক ওই ব্যস্ততা মিটতে সময় লাগবে। তাই তাঁকে যেন সিবিআই দপ্তরে যাওয়ার জন্য অন্য দিন নির্দিষ্ট করা হয়। এবং সেটা সাতদিন পর। পাশাপাশি বারাসত আদালতে জামিনের আগাম আবেদনও জানাননি তিনি। গতকাল বিকেল অবধি রাজীবের আরজি নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটে থাকেন সিবিআই কর্তারা।  তবে রাতের দিকে আকারে ইঙ্গিতে তাঁরা বুঝিয়ে দেন যে আর সময় দেওয়া হবে না প্রাক্তন নগরপালকে। 

[তৃণমূলের ‘বেনোজল’ বিজেপিতে, অসন্তোষ বাড়ছে বঙ্গের গেরুয়া শিবিরেই]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement