BREAKING NEWS

২৩ শ্রাবণ  ১৪২৭  রবিবার ৯ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

মোদি মন্ত্রিসভার শপথে মাতছে কলকাতাও, বাড়ি বাড়ি বিলি লাখখানেক লাড্ডু

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 30, 2019 8:54 am|    Updated: May 30, 2019 8:54 am

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: বাংলায় বিপুল সাফল্য গেরুয়া শিবিরের। গোটা দেশই কার্যত মোদিময়। আজ দিল্লিতে রাষ্ট্রপতি ভবনে দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিতে চলেছেন নরেন্দ্র মোদি। অনুষ্ঠানের আয়োজনে রাজধানীতে হলেও, সেই আঁচে ফুটছে বাংলাও। এখানেও বিজেপির কর্মী,সমর্থকরা উৎসবে মাততে চলেছেন। আর সেই শপথ উৎসব সেলিব্রেট করতে শুধু বড়বাজারেই তৈরি হচ্ছে এক লাখ লাড্ডু। যে লাড্ডু আজ সন্ধ্যায় ঠিক শপথ অনুষ্ঠানের সময় প্যাকেটবন্দি হয়ে পৌঁছে যাবে প্রতিটা ভোটারের বাড়ি বাড়ি। কোথাও আবার জায়ান্ট স্ক্রিন লাগানো হচ্ছে। সেখানে শপথ অনুষ্ঠানের লাইভ সম্প্রচার দেখানো হবে। আর পাড়ায় পাড়ায় মিষ্টি মুখের আয়োজন তো হচ্ছেই।

[আরও পড়ুন: চারদিনে ৪ বার! ফের বদল বিধাননগরের কমিশনার পদে]

আজ সন্ধ্যায় দিল্লিতে নরেন্দ্র মোদি ও তাঁর মন্ত্রিসভার সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পৌঁছে গিয়েছে বঙ্গ বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব যাচ্ছেন। দলের রাজ্য পদাধিকারীরা সকলেই থাকবেন। এছাড়া দলের সব জেলার সভাপতিরাও রওনা হয়ে গিয়েছেন। কেউ গিয়েছেন বিমানে। কেউ কেউ আবার বুধবার শিয়ালদহ ও হাওড়া থেকে রাজধানী এক্সপ্রেসে রওনা হয়েছেন। দিল্লিতেই রয়েছেন বাংলা থেকে নবনির্বাচিত বিজেপির ১৮জন সাংসদ। আবার বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রায় ৪০জন কর্মী-সমর্থকদেরও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে নিয়ে আসার ব্যবস্থা করেছেন নবনির্বাচিত সাংসদ ডাঃ সুভাষ সরকার। আজ সন্ধ্যায় দিল্লিতে যখন শপথ অনুষ্ঠান চলবে তখন বাংলাতেও উৎসবে মাতবেন বিজেপির নেতা-কর্মীরা।
বড়বাজার এলাকায় এক লাখের বেশি লাড্ডু তৈরি হচ্ছে। ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের কালাকার স্ট্রিটে। স্থানীয় কাউন্সিলর তথা বিজেপি নেতা বিজয় ওঝা জানালেন, “প্রতি ভোটারের বাড়িতে প্যাকেটে চার পিস করে লাড্ডু আমরা পাঠাব।” মানিকতলা, ৬৭ নম্বর ওয়ার্ডের কসবা শ্যাম মন্দিরের সামনে লাড্ডু বিলি হবে। সেখানে উৎসবে মাতবেন বিজেপি কর্মীরা। ফুলবাগানে শপথ অনুষ্ঠানের লাইভ সম্প্রচার দেখানো হবে। বিজেপির সব জেলা পার্টি অফিস, জনবহুল এলাকায় লাগানো হচ্ছে জায়ান্ট স্ক্রিন। শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণপত্রের চাহিদাও বাংলায় তুঙ্গে। রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নেতারা বুধবারই রওনা হয়ে গিয়েছেন দিল্লির উদ্দেশে। মাঝারি নেতারা আমন্ত্রণপত্র পেতে শেষ মুহূর্তেও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

[আরও পড়ুন: ‘পচা আলু উতরে দিল, টাটকা আলু হড়কে গেল’, নাম না করে সুজিতকে কটাক্ষ সব্যসাচীর]

বুধবার দুপুর থেকে রাজ্য বিজেপি দফতর প্রায় ফাঁকাই। সমস্ত নেতার ঠিকানাই দিল্লি।আজ সারা বাংলার নজর থাকছে মোদির মন্ত্রিসভার সদস্য কারা কারা হচ্ছেন সেদিকেও। বাংলার নবনির্বাচিত ১৮জন সাংসদদের মধ্যে থেকে কারা মন্ত্রিসভায় জায়গা পেতে চলেছেন সেদিকেও নজর সকলের। কমপক্ষে চার থেকে সর্বাধিক ছ’জন বাংলা থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় জায়গা পেতে পারেন বলে দলীয় সূত্রে খবর।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement