BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

লকডাউনে স্তব্ধ কালীঘাটের পটুয়াপাড়া, মৃৎশিল্পীদের পাশে দাঁড়ালেন পুজোওয়ালারা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 6, 2020 2:09 pm|    Updated: April 6, 2020 7:42 pm

Forum for Durgotsav helps artists of Kumartuli during lockdown

শুভময় মণ্ডল: করোনার (Corona Virus) দাপটে স্তব্ধ দেশ। যার জেরে পালটে গিয়েছে কলকাতার অতি পরিচিত কালীঘাটের পটুয়াপাড়ার ছবিটাও। একের পর এক বাতিল হয়েছে প্রতিমার অর্ডার। হাতে কাজ নেই। স্বাভাবিকভাবেই এতে প্রবল অর্থ সংকটে মৃৎশিল্পীরা। সমস্যা বুঝে তাঁদের পাশে দাঁড়াল ফোরাম ফর দুর্গোৎসব। হাতে তুলে দিল প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী।

মৃৎশিল্পীদের ব্যস্ততা সারা বছরের। অর্ডার অনুযায়ী বছরভর চলতে থাকে প্রতিমা তৈরির কাজ। কিন্তু করোনা সংক্রমণের আতঙ্কে গোটা দেশ কার্যত থমকে গিয়েছে। ঘরবন্দি অবস্থায় মানুষ। ফলে একের পর এক বাসন্তী পুজো, অন্নপূর্না পুজোর প্রতিমার অর্ডার বাতিল হয়েছে। যার ফলে আর্থিক সমস্যায় পড়তে হচ্ছে মৃৎশিল্পীদের। এক শিল্পীর কাছ থেকে তাঁদের দুরবস্থার কথা জানার পরই পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় ফোরাম ফর দুর্গোৎসব। সেই মতো সমস্ত সদস্যদের নিয়ে কালীঘাটের পটুয়াপাড়ার মৃৎশিল্পীদের সঙ্গে দেখা করেন ফোরাম ফর দুর্গোৎসবের যুগ্ম সম্পাদক শ্বাশত বসু। শিল্পীদের হাতে তুলে দেন খাদ্য সামগ্রী। আশ্বাস দেন পাশে থাকার।

Kumortuli-2

[আরও পড়ুন: মানবিক উদ্যোগে শামিল ‘সংবাদ প্রতিদিন’ ও খেজুরি সৎসঙ্গ, দুস্থদের খাদ্যসামগ্রী বিলি]

kumortuli-3

এ প্রসঙ্গে ফোরাম ফর দুর্গোৎসবের যুগ্ম সম্পাদক শ্বাশত বসু বলেন, “এই পরিস্থিতিতে আমাদের সকলের পাশে দাঁড়াতে হবে। পুজোর কেন্দ্রবিন্দুতেই রয়েছেন মৃৎশিল্পীরা। কিন্তু বর্তমানে লাগাতার অর্ডার বাতিলে প্রবল সমস্যায় প্রায় পঞ্চাশ জন শিল্পী ও তাঁদের পরিবার। সেই কারণেই তাঁদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত। আমরা সাধ্যমতো সামগ্রী ওনাদের হাতে তুলে দিয়েছি।” সকলকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন তিনি। জানা গিয়েছে, শীঘ্রই কুমোরটুলির ১৫টি পরিবারের হাতে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দেবে এই সংগঠন।

[আরও পড়ুন: এলাকায় করোনা হাসপাতাল নয়, দাবিতে হাসপাতালে ভাঙচুর-আগুন উন্মত্ত জনতার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে