৮ ফাল্গুন  ১৪২৬  শুক্রবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লিতে ভরাডুবির পর দলের অন্দরেই অন্তর্তদন্তের দাবি জোরাল হয়েছে। স্থানীয় নেতৃত্বের জনপ্রিয়তার অভাবেই ভুগতে হয়েছে বিজেপিকে। এবার দলীয় সাংসদ স্বপন দাশগুপ্তর টুইট খোঁচায় অস্বস্তি বাড়ল গেরুয়া শিবিরে। মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী ঘোষণা করে ভোটে লড়া উচিত বলে টুইটে বার্তা দিয়েছেন রাজ্যসভার সাংসদ। তাই নিয়ে দলের অন্দরেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে। এর পালটা দিয়েছেন বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

দিল্লিতে টানা পাঁচবার হারল বিজেপি। ২২ বছর রাজধানীর ক্ষমতার বাইরে তারা। ২০১৫-এর মতো এবারও ঝাড়ুর দাপটে সাফ হয়ে গিয়েছে পদ্ম। দলের ভরাডুবির পর বিজেপির কী কী শিক্ষা নেওয়া উচিত তা নিয়ে টুইট করেছেন স্বপন দাশগুপ্ত। তিনি লিখেছেন, ‘আদর্শগত ইস্যুর পরিপূরক হিসাবে উন্নয়নমূলক কাজে গুরুত্ব দিতে হবে। শুধু ভোট এলেই নয়, সারাবছর পাড়ায় পাড়ায় দলের ইউনিট গড়ে প্রচার করতে হবে। আর শুধু মোদি-শাহের উপর নির্ভর করে নির্বাচন জেতা যাবে না, মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী ঘোষণা করা উচিত।’

[আরও পড়ুন: ‘মাদ্রাসা-স্কুলে হনুমান চালিশা পাঠ বাধ্যতামূলক করুন’, কেজরিওয়ালকে পরামর্শ কৈলাসের]

দলের অন্দরে স্বপনের টুইট নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। সাংসদ কি দিল্লির ফল নিয়ে বঙ্গ বিজেপিকে বার্তা দিলেন একুশের জন্য? জল্পনা রাজনৈতিক মহলে। অনেকেই মনে করছেন, নাম না করে বিজেপি সাংসদের টার্গেট দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বাধীন রাজ্য বিজেপি। তবে ঘুরিয়ে দিলীপ ঘোষও পালটা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘অনেকে অনেক কথা বলবেন। বাস্তবের মাটিতে নেমে কাজ করা উচিত। মুখ্যমন্ত্রীর নাম আমাদের দলে আগে ঘোষণা হয় না। জয়ের পর ঠিক হয়।’

দিলীপ ঘোষের দাবি, বাংলায় তাঁদের সাংগঠনিক অবস্থা খুব ভাল। ঠিক পথেই এগোচ্ছে দল। মোদি-শাহকে নিয়ে স্বপনবাবু যা বলেছেন তাঁর উত্তরে দিলীপের মন্তব্য, এর জবাব হাইকমান্ড দেবে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং