BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২২ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

প্রমোটিং বিবাদে গ্যাংওয়ার, রাতের শহরে ফের চলল গুলি

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 26, 2019 10:26 am|    Updated: January 26, 2019 9:34 pm

Gangwar in Tiljala, firing at night

অর্ণব আইচ: প্রমোটিং নিয়ে বিবাদ। আর তাকে কেন্দ্র করে আবারও রাতের শহরে চলল গুলি৷ উত্তপ্ত তিলজলার শিবতলা লেন৷ খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে যায় তিলজলা এবং কড়েয়া থানার বিশাল পুলিশবাহিনী৷ পুলিশকে ঘিরেও বিক্ষোভ দেখান স্থানীয়রা৷ এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷

তিলজলার শিবতলা লেনের দীর্ঘদিনের বাসিন্দা ছায়া দাস৷ তাঁর পাঁচ কাঠা জমি রয়েছে৷ ওই জমির পাশেই রয়েছে মহম্মদ খুরশিদ নামে এক ব্যক্তির দোকান৷ স্থানীয় সূত্রে খবর, নিজের ওই জমিতে বহুতল নির্মাণের পরিকল্পনা করেছিলেন ছায়া এবং খুরশিদ৷ এদিকে আবার ছায়া দেবীর অভিযোগ, ওই জমিটির মালিকানা নেওয়ার চেষ্টা করছিল এলাকারই যুবক হায়দার, হাফিজ, রকি, বিকাশ এবং প্রদীপ৷ তাঁরাও ওই জমিটিতে বহুতল নির্মাণের ছক কষেছিলেন৷ যদিও তাতে রাজি ছিলেন না ওই মহিলা৷ এই নিয়ে বিবাদ চলছিল৷ শুক্রবার গভীর রাতে তা বিরাট আকার নেয়৷ অভিযোগ, ওই পাঁচ যুবক আচমকাই শিবতলা লেনে গিয়ে খুরশিদের দোকানে ভাঙচুর শুরু করে। তাতে বাধা দেয় খুরশিদ৷ অভিযোগ, বাধা পেয়ে ওই পাঁচ যুবক খুরশিদকে বেধড়ক মারধর করে৷ চিৎকার চেঁচামেচিতে জড়ো হয়ে যান পাড়া-প্রতিবেশীরা৷ পরিস্থিতি বেসামাল বুঝতে পেরে বন্দুক উঁচিয়ে শূন্যে গুলি চালাতে শুরু করে হামলাকারীরা৷ প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, অন্ততপক্ষে সাত রাউন্ড গুলি চালিয়েছে হায়দার, হাফিজ, রকি, বিকাশ এবং প্রদীপ৷ 

[এনআরএস হাসপাতালে কুকুর নিধনে সাসপেন্ড অভিযুক্ত দুই নার্সিং পড়ুয়া]

ইতিমধ্যেই রাতের শহরে গুলি চলার খবর গিয়ে পৌঁছায় পুলিশের কানে৷ তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে যায় তিলজলা এবং কড়েয়া থানার পুলিশ৷ স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রমোটিং নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় দুই গোষ্ঠীর অশান্তি লেগেই আছে৷ পুলিশের কানে সে খবর গেলেও, কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি৷ পুলিশের ভূমিকায় বিরক্ত তাঁরা৷ ফলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে, এই অভিযোগ তুলেই পুলিশকে ঘিরে ধরেই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয় বাসিন্দারা৷ পুলিশের সঙ্গে তর্কাতর্কি এবং হাতাহাতিতেও জড়িয়ে পড়েন কেউ কেউ৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কিছুক্ষণের মধ্যেই অতিরিক্ত পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছায়৷ এলাকায় শান্তি ফেরানোর বন্দোবস্তের আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়৷ তবে সকালের দিকেও থমথমে ছিল তিলজলার শিবতলা লেন।

[OMG! অনলাইনে মোবাইল অর্ডার করে সাবান পেলেন বাগুইআটির দম্পতি]

এই ঘটনার জেরে শনিবার সকালেও থমথমে তিলজলার শিবতলা লেন৷ ওই এলাকায় এখনও মোতায়েন রয়েছে বিশাল পুলিশবাহিনী৷ প্রমোটিং বিবাদের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত তিনজনকে আটক করা হয়েছে৷ তাদের জেরা করেই মূল পাণ্ডার খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে