৩ ফাল্গুন  ১৪২৬  রবিবার ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo দিল্লি ২০২০ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩ ফাল্গুন  ১৪২৬  রবিবার ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

অর্ণব আইচ: সংঘাতের মাঝে সাধারণতন্ত্র দিবসে এক মঞ্চে রাজ্যপাল এবং মুখ্যমন্ত্রী। মিনিট পাঁচেক একসঙ্গে কথা হয় তাঁদের। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয় রাজ্যপালের স্ত্রী সুদেশ ধনকড়েরও। তবে রেড রোডে সাধারণতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান শেষে কোন বিষয়ে কথা হয় দু’জনের তা এখনও জানা যায়নি। রাজভবনের চা চক্রে মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ করেন রাজ্যপাল। তাতে যোগ দেবেন বলেই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে ৭১তম সাধারণতন্ত্র দিবস। সেই উপলক্ষে রেড রোডেও বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সংঘাতের মাঝে অনুষ্ঠানে ফের একমঞ্চে দেখা গেল রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। রবিবার সকাল ৯টা ৫২মিনিটে ডাফরিন রোডের দিক থেকে হেঁটে রেড রোডে অনুষ্ঠান মঞ্চে পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী।

Mamata Banerjee
সাধারণতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে রেড রোডে মুখ্যমন্ত্রী। ছবি: অমিত ঘোষ।

তার ঠিক মিনিট ছয়েক পরই ৯টা ৫৮মিনিটে সাধারণতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান মঞ্চে উপস্থিত হন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। সঙ্গে ছিলেন তাঁর স্ত্রী সুদেশ ধনকড়। চলে কুচকাওয়াজ, ট্যাবলো প্রদর্শন। ১০টা ৫১মিনিটে শেষ হয় অনুষ্ঠান। সভামঞ্চ থেকে একে একে নেমে পড়েন রাজ্যপাল এবং মুখ্যমন্ত্রী।

Jagdeep Dhankar
রেড রোডে রাজ্যপাল ও মুখ্যমন্ত্রী। ছবি: অমিত ঘোষ।

গাড়িতে চড়ে চলে যাওয়ার আগে রাজ্যপালের সঙ্গে মিনিট পাঁচেক কথা হয় মুখ্যমন্ত্রীর। ধনকড়ের স্ত্রী সুদেশের সঙ্গেও কথা বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, রাজভবনে চা চক্রে মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ করেন রাজ্যপাল। যাবেন বলেই কথা দেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে ঠিক কী বিষয়ে রাজ্যপাল এবং মুখ্যমন্ত্রীর কথা হয়েছে, তা এখনও জানা যায়নি।

Jagdeep Dhankar
রেড রোডে রাজ্যপালের সঙ্গে কথা মুখ্যমন্ত্রীর। ছবি: অমিত ঘোষ।

[আরও পড়ুন: ফের মনুয়া কাণ্ডের ছায়া, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কাঁটা সরাতে প্রেমিককে দিয়ে স্বামীকে খুন]

দায়িত্ব গ্রহণের পরই রাজ্যকে কিছু না জানিয়ে শিলিগুড়িতে প্রশাসনিক বৈঠক ডেকেছিলেন রাজ্যপাল। তাতেই জন্ম নেয় রাজ্য-রাজ্যপাল সংঘাত। এরপর বিভিন্ন বিষয়ে মতবিরোধ হয়েছে ধনকড় এবং মুখ্যমন্ত্রীর। এর আগে সংবিধান দিবসে রাজভবন এবং বিধানসভায় দুটি পৃথক অনুষ্ঠানের আয়োজনও করা হয়। রাজভবনের অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী যাননি ঠিকই। তবে রাজ্য বিধানসভার অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়।

Jagdeep Dhankar
সংবিধান দিবসের অনুষ্ঠানে রাজ্যপাল।

অনুষ্ঠানে মুখোমুখি হলেও বাক্য বিনিময় হয়নি তাঁদের। সম্প্রতি গণপিটুনি এবং এসসি-এসটি বিল নিয়ে আলোচনার জন্য রাজভবনে সর্বদলীয় বৈঠকের ডাক দিয়েছিলেন রাজ্যপাল। অন্য কাজ থাকায় বৈঠকে যোগ দেবেন না বলেই জানিয়ে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। বৈঠক ভেস্তে যায়। শিক্ষাক্ষেত্রেও রাজ্যপালের ক্ষমতা খর্ব করতে পদক্ষেপ নিয়েছে রাজ্য সরকার। একের পর এক ঘটনায় রাজ্য সরকার এবং রাজ্যপালের সম্পর্কের তিক্ততা বেড়েছে ক্রমশই। তারই মাঝে সাধারণতন্ত্র দিবসে রাজ্যপালের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর সাক্ষাৎ যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই দাবি রাজনৈতিক মহলের। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং