১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘বাংলা সফর নিয়ে আমি উৎসাহী’, কলকাতায় আসার আগে টুইট প্রধানমন্ত্রীর

Published by: Paramita Paul |    Posted: January 11, 2020 11:32 am|    Updated: January 11, 2020 11:36 am

'I am excited': PM Modi on two days visit to West Bengal.

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দু’দিনের সফরে রাজ্যে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ঠাসা কর্মসূচির পাশাপাশি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করার কথা রয়েছে। কলকাতা আসার আগেই সফর নিয়ে টুইট করলেন প্রধানমন্ত্রী। নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে লেখেন, “পশ্চিমবাংলার দু’দিনের সফর নিয়ে আমি উৎসাহী। বিবেকানন্দ জয়ন্তীতে রামকৃষ্ণ মিশনে কিছুটা সময় কাটাতে পারব ভেবেই আনন্দ হচ্ছে।” তাৎপর্যপূর্ণ এই সফরের আগে প্রধানমন্ত্রীর এই টুইট যে গুরুত্বপূর্ণ তা বলাই বাহুল্য।

দেশজুড়ে NRC, CAA ইস্যুতে বিক্ষোভ চলছে। আবার এই আন্দোলনের ভরকেন্দ্র পশ্চিমবাংলা। সেই আবহেই রাজ্যে আসছেন প্রধানমন্ত্রী। এমনকী CAA বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম মুখ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে একই মঞ্চে থাকবেন তিনি। ফলে এই সফর ঘিরে দেশজুড়ে আগ্রহ তুঙ্গে। তাঁর দু’দিনের কর্মসূচিতে যাতায়াতের সময় বেশ কিছু সংগঠন বিক্ষোভ দেখাবে বলে ঠিক আছে। তাই নিরাপত্তার আরও কড়াকড়ি করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, দমদম বিমানবন্দরে মোদিকে স্বাগত জানাবেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। সেখান থেকে কপ্টারে রেসকোর্সে নেমে প্রধানমন্ত্রী যাবেন রাজভবনে। সেখানে তাঁর সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠক হবে। এরপর বিবাদী বাগে কারেন্সি বিল্ডিংয়ে সংস্কার করা ঐতিহ্যবাহী ওল্ড কারেন্সি বিল্ডিং, বেলভেদর হাউস, মেটকাফে হাউস এবং ভিক্টোরিয়া হলের দরজা সাধারণের জন্য খুলে দেবেন তিনি। তারপর যাবেন গঙ্গা পাড়ে মিলেনিয়াম পার্কে। সেখান থেকে উদ্বোধন করবেন হাওড়া ব্রিজের লাইট অ্যান্ড সাউন্ড-সহ সৌন্দর্যায়ন প্রকল্প। এই অনুষ্ঠানে থাকবেন মুখ্যমন্ত্রীও। তারপর বিশেষ জলযানে বেলুড় মঠে গিয়ে কিছু সময় কাটিয়ে রাতে লঞ্চেই রাজভবনে ফিরবেন মোদি।

[আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর রাজ্য সফরে শোনা যাবে ‘মোদি গো ব্যাক’ স্লোগান, প্রস্তুতি বাম-কংগ্রেসের]

রাজ্য সফরে এসেও বেলুড় মঠে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এবার তাঁর অন্যথা হচ্ছে না। ঠাসা কর্মসূচির মধ্যেই শনিবার সন্ধেয় জলপথে বেলুড়ে যাবেন। এ বিষয়েও একটি টুইট করেন মোদি। রামকৃষ্ণ মিশনে স্বামী আত্মস্থানন্দের অনুপস্থিতি প্রধানমন্ত্রীর কাছে কতটা হৃদয় বিদারক, তাও টুইটারে ব্যাখা করেন মোদি। প্রধানমন্ত্রী টুইটারে লেখেন, “রামকৃষ্ণ মিশনে যাব অথচ সেখানে স্বামী আত্মস্থানন্দ থাকবেন না, এটা অকল্পনীয়। উনিই আমাকে জীবনের মূল আর্দশ শিখিয়েছেন। জীবের সেবাই হল প্রভুর সেবা।” প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে দেহ রেখেছিলেন স্বামী আত্মস্থানন্দ। সফর নিয়ে একাধিক টুইট করলেও মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক নিয়ে একটি শব্দও খরচ করেননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। যা অবশ্যই তাৎপর্যপূর্ণ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে