BREAKING NEWS

১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

অ্যালোপ্যাথি নিয়ে মন্তব্যের জের, এবার রামদেবের বিরদ্ধে কলকাতায় দায়ের FIR

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 28, 2021 8:41 pm|    Updated: May 28, 2021 9:00 pm

IMA West Bengal lodged a FIR agaist Baba Ramdev over allopathy comment | Sangbad Pratidin

অভিরূপ দাস: ‘অ্যালোপাথি’ (Allopathy) মন্তব্যের জের। এবার রামদেবের (Ramdev) বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করল ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশানের (IMA) পশ্চিমবঙ্গ শাখা। সিঁথি (Sinthi) থানায় দায়ের করা হয়েছে FIR। অতিমারী আইনে যোগগুরুকে গ্রেপ্তারির দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

সম্প্রতি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল এক ভিডিওতে যোগগুরু রামদেবকে বলতে শোনা গিয়েছিল,”অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা আসলে বোকামি। চিকিৎসার নামে তামাশা চলে। লক্ষ লক্ষ মানুষ মারা যাচ্ছে শুধুমাত্র অ্যালোপ্যাথি ওষুধ খেয়ে।” যোগগুরুর দাবি ছিল, করোনার (CoronaVirus) বিরুদ্ধে একের পর এক অ্যালোপ্যাথি ওষুধ ব্যর্থ হচ্ছে। কারণ, ওই চিকিৎসা পদ্ধতিতে রোগের আসল কারণ অনুসন্ধানই করা হয় না। এই মন্তব্যেরে জেরে তীব্র বিতর্ক তৈরি হয়েছে। বাধ্য হয়ে সাফাই দেয় রামদেবের সংস্থা পতঞ্জলি। চাপে পড়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন চিঠি লিখে রামদেবকে ক্ষমা চাইতে অনুরোধ করেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আহ্বানে বাবা রামদেব প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইলেও পালটা অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা নিয়ে গোটা ২৫ প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন। যোগগুরুর প্রশ্ন, অ্যালোপ্যাথি যদি এতই ভাল হবে, তাহলে চিকিৎসকরা অসুস্থ হন কেন। অ্যালোপ্যাথি ২০০ বছরেও বহু রোগের ওষুধ তৈরি করতে পারেনি কেন?

[আরও পড়ুন: আগামী মাসের শুরুতেই সাংগঠনিক বৈঠক তৃণমূলের, থাকবেন সাংসদ-বিধায়করা]

এই কটাক্ষের জন্যই রামদেবের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করার সিদ্ধান্ত নেয় IMA উত্তরাখণ্ড। জানিয়ে দেওয়া হয়, ১৫ দিনের মধ্যে লিখিত ভাবে ক্ষমা না চাইলে যোগগুরুকে ১ হাজার কোটি টাকার মানহানির নোটিস পাঠানো হবে। আইএমএ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে একটি চিঠি লিখে আবেদন জানায়, এই ধরনের ভুয়ো তথ্য ছড়ানো থেকে আটকানো হোক রামদেবকে। এই পরিস্থিতিতে রামদেব চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে বলেন, “রামদেবকে কেউ গ্রেপ্তার করতে পারবে না।” এবার এই বিতর্কের জল গড়াল কলকাতা পর্যন্ত।

শুক্রবার আইএমএ পশ্চিমবঙ্গ শাখার তরফে যোগগুরু রামদেবের বিরুদ্ধে সিঁথি থানায় এফআইআর করলেন শান্তনু সেন (Santanu Sen) ও চিকিৎসক সন্তোষ মণ্ডল, অনির্বাণ দলুই। সেখানে বলা হয়েছে, “অ্যালোপ্যাথি নিয়ে ভুল মন্তব্য করেছেন।” শান্তনু সেন বলেন, “এখন করোনা যেভাবে বাড়ছে, এই পরিস্থিতিতে রামদেবের মন্তব্যে বিপদ আরও বাড়ছে। এই মন্তব্য চিকিৎসকদের জন্য মানহানিকর।” রামদেব দাবি করেছিলেন, দুটো টিকা নিয়েই বহু চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। সেই প্রসঙ্গে শান্তুনুবাবু বলেন,  “যে সব চিকিৎসকরা ২ টো টিকা নিয়ে মারা গিয়েছে, তাঁদের মৃত্যু জন্য টিকা কোনওভাবে দায়ী নয়। সমাজকে ভুল পথে চালিত করতে চাইছেন রামদেব।” 

[আরও পড়ুন: কোন ক্ষতিতে কত আর্থিক সাহায্য? ‘দুয়ারে ত্রাণ’ নিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে জানাল রাজ্য সরকার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে