BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘কাটমানির টাকা কোথায়?’, করোনা চিকিৎসার সরঞ্জাম কেনাতেও ‘দু্র্নীতি’ নিয়ে মমতাকে তোপ ধনকড়ের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 21, 2020 12:57 pm|    Updated: August 21, 2020 1:45 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (Corona Virus) চিকিৎসায় ব্যবহৃত সরঞ্জাম কেনাতেও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি কানে যেতেই তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই ইস্যুতেই এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিঁধলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। কোথা থেকে সরঞ্জাম কেনা হয়েছে, কারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা জানিয়ে শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবিও জানান তিনি।

শুক্রবার সকালে পরপর দুটি টুইট করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankhar)। করোনা চিকিৎসায় ব্যবহৃত সরঞ্জাম কেনাতেও দুর্নীতি প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীকে বিঁধে লেখেন, “এবার পর্দা সরিয়ে আসল তথ্য বাইরে আনুন। আর্থিক অনিয়ম এবং নির্দিষ্ট কয়েকজনের লাভবান হওয়ার খবরে বিরক্তি বোধ করছি।” আরেকটি টুইটে ধনকড় লেখেন, “কেনাকাটার কাটমানি কোথায় গেল? কে বা কারা লাভবান হলেন? সেটা খোঁজাই তদন্তের একমাত্র কাজ হওয়া উচিত। করোনা চিকিৎসার সরঞ্জাম ক্রয়ের হিসাব, কোথা থেকে কেনা হয়েছে, কারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তা জানিয়ে শ্বেতপত্র প্রকাশ করা হোক। স্বচ্ছতার অভাবেই দুর্নীতির জন্ম।”

[আরও পড়ুন: ৬৩ দিনের শিশুর কাছে হেরে ভূত ভাইরাস, ভেন্টিলেশন থেকে সম্পূর্ণ সুস্থ কাঁথির খুদে]

প্রসঙ্গত, করোনা চিকিৎসার জন্য গত কয়েকমাসে প্রায় ২ হাজার কোটি টাকার সরঞ্জাম কিনেছে রাজ্য সরকার। রাজ্যের অধীন ওয়েস্ট বেঙ্গল মেডিক্যাল সার্ভিসেস কর্পোরেশন লিমিটেড নামে এক সংস্থা মূলত এই সরঞ্জাম কিনে থাকে। একসঙ্গে প্রচুর সামগ্রী কেনায় সময়ও অনেকটা বেশি লাগে। সেই কারণে করোনা আবহে একটি আলাদা কমিটি গঠন করা হয়েছিল। যাতে অল্প সময়ে প্রয়োজনীয় সামগ্রী পাওয়া যায়। এক আধিকারিকের কথায়, ওই সময় নিয়মের বাইরে গিয়ে ওই কিছু এজেন্সি থেকে ওষুধ কেনা হয়েছিল। যার গুণমান খারাপ ছিল। সম্প্রতি একথা মুখ্যমন্ত্রীর কানে পৌঁছায়। এবিষয়ে খোঁজ খবর নেওয়ার পরই তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দেন তিনি।

[আরও পড়ুন: সাতদিনের করোনা যুদ্ধে অবশেষে হার, প্রয়াত কলকাতা পুলিশের অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement