BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘ছিদ্র বেরিয়ে পড়ছে’, ধারাবাহিক পুলিশ বিক্ষোভের ঘটনায় রাজ্যকে বিঁধলেন রাজ্যপাল

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 30, 2020 3:07 pm|    Updated: May 30, 2020 3:33 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কলকাতা পুলিশের ধারাবাহিক বিক্ষোভের ঘটনায় এবার উদ্বেগ প্রকাশ করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। এসব ঘটনার জন্য যথারীতি রাজ্য সরকারকেই বিঁধেছেন তিনি। এদিন টুইটারে গভীর উদ্বেগের কথা প্রকাশ করে ধনকড় লিখেছেন, ফাটল ক্রমশ স্পষ্ট হচ্ছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের মাথাব্যথা বাড়ানোর মতো বিষয়।

পুলিশ ট্রেনিং স্কুল (PTS), গড়ফা থানার পর শুক্রবার সন্ধেবেলা পুলিশ বিক্ষোভের আঁচ ছড়িয়ে পড়েছিল বিধাননগরেও। দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সেক্টর ১-এর পুলিশ ব্যাটেলিয়ন। ব্যারাকের ভিতর ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ ওঠে কয়েকজন পুলিশ কর্মীর বিরুদ্ধে। পুলিশ সূত্রে খবর, পরিস্থিতি সামাল দিতে গিয়ে হেনস্তার শিকার হতে হয়েছে বিধাননগর কমিশনারেটের জয়েন্ট সিপি ও ডিসি পর্যায়ের আধিকারিকদেরও।

[আরও পড়ুন: করোনা পজিটিভ মন্ত্রী সুজিত বসু, আরোগ্য কামনায় মহাযজ্ঞের আয়োজন কাউন্সিলরের]

এদিনের বিক্ষোভের সূত্রপাতও ছিল সেই করোনা ইস্যু ঘিরে। কলকাতা আর্মড পুলিশের চতুর্থ ব্যাটেলিয়ানের আবাসনে পুলিশের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। তারপর তার সংস্পর্শে আসা কয়েকজন সহকর্মীকে আলাদা করে কোয়ারান্টাইনে রাখা হয়। পুলিশের তরফে দাবি ওঠে, তাঁদের জন্য আলাদা কোয়ারান্টাইন সেন্টার করা হোক। এই নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে কার্যত ধুন্ধুমার বেঁধে যায় CAP ক্যাম্পে। এর আগে পিটিএস এবং গড়ফা থানাতেও এই একই ইস্যু ঘিরে পুলিশ কর্মীরা বিক্ষোভ দেখিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: কলকাতা পুলিশে ফের বিক্ষোভ, বিধাননগরের পুলিশ ব্যারাকে ভাঙচুর]

শুক্রবারের ঘটনার রেশ ছিল অনেক রাত পর্যন্ত। পরে পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়। শনিবার দুপুরে ওই ঘটনাকে সামনে রেখেই টুইট করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। আগের প্রতিটি ঘটনার কথা উল্লেখ করে তাঁর মত, উর্দিধারীদের এমন বিক্ষোভ সত্যিই চিন্তার। কলকাতা পুলিশের মধ্যে এ ধরনের আচরণ ফাটলই স্পষ্ট করছে, যা কাম্য নয়।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement