BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১১ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

সম্পর্কের ভাঙনের জেরে অবসাদ, কলকাতার শ্যামপুকুরে আত্মঘাতী দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র

Published by: Bishakha Pal |    Posted: July 2, 2020 12:55 pm|    Updated: July 2, 2020 1:37 pm

An Images

অর্ণব আইচ: এক রাতের মধ্যে কলকাতার দুই প্রান্তে দুই পড়ুয়ার আত্মহত্যার ঘটনা। বৃহস্পতিবার সকালে শ্যামপুকুরে এক দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। অন্যদিকে মাদুরদহ থেকে উদ্ধার হয়েছে এক ছাত্রীর দেহ। বিচ্ছিন্ন এই ঘটনা দু’টির তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

শ্যামপুকুরে এই ছাত্রের নাম আয়ুশ ভট্টাচার্য। বৃহস্পতিবার তার বাড়ি থেকে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরিবার সূত্রে খবর, বুধবার রাতে খাওয়ার পর নিজের ঘরে চলে যায় সে। মাঝরাতে তাকে দেখতে গিয়ে পরিবারের সদস্যরা দেখেন আত্নঘাতী হয়েছেন আয়ুশ। পুলিশ জানিয়েছে, একটি মেয়ের সঙ্গে তার বহুদিন ধরেই সম্পর্ক ছিল। মাস ছয়েক আগে সম্পর্ক ভেঙে যায়। তখন থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগছিল সে। কলকাতার একটি নামী স্কুলে পড়ত আয়ুশ। পড়াশোনাতেও খুব একটা ভাল ছিল না। এই সব নিয়ে প্রায়ই বাড়িতে অশান্তি হত। সেই সব কারণেই আয়ুশ আত্মঘাতী হয়েছে বলে মনে করছে পুলিশ। অন্যদিকে, বুধবার রাতে মাদুরদহে প্রিয়তমা খাতুন নামে এক তরুণীও আত্মঘাতী হন। যদিও তাঁর আত্মহত্যার কারণ নিয়ে এখনও ধন্দে পুলিশ।

[ আরও পড়ুন: কলকাতায় করোনার বলি সেনা আধিকারিক, ক্রমশ বাড়ছে উদ্বেগ ]

জুন মাসে অবসাদ থেকেই কলকাতায় আত্মঘাতী হয়েছেন ৪৫ জন। পুলিশের তরফ থেকে খতিয়ে দেখা হচ্ছে প্রত্যেকটি আত্মহত্যার কারণ। পুলিশ জানিয়েছে, গত মাসে আনলক শুরু হলেও লকডাউনের রেশ যায়নি। লকডাউনের কারণে অভাব-অনটন এবং সাংসারিক চাপ মেনে নিতে পারেননি অনেকেই। সেই কারণেই গত মাসে গড়িয়াহাটের হকার, অ্যাপ ক্যাবচালক, গাড়ির চালক ছোট অফিসের কর্মচারী থেকে শুরু করে অনেকেই আত্মঘাতী হন। রিজেন্ট পার্কে মা ও ছেলের আত্মহত্যার পিছনে কারণ এই অভাব ও অনটনই। ঠাকুরপুকুরে বিষপান করে আত্মঘাতী হয়েছেন একই পরিবারের তিনজন। এ ছাড়াও একাধিক নাবালক নাবালিকা ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে। পুলিশের সন্দেহ আত্মহত্যা করেছে তারাও। আবার গত মাসে ঘটে গিয়েছে ফুলবাগানে অমিত আগরওয়ালের আত্মহত্যার ঘটনা, যিনি শাশুড়িকে গুলি করে খুন করার পর সেই পিস্তল দিয়েই আত্মঘাতী হন।

[ আরও পড়ুন: করোনা কাঁটায় আটকে বিল, পাশ করাতে ভারচুয়াল অধিবেশন হতে পারে বিধানসভায় ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement