BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

দমদম স্টেশনে উদ্ধার ৩০ লক্ষ টাকার সোনা, ধৃত বনগাঁর বাসিন্দা

Published by: Sulaya Singha |    Posted: February 13, 2021 9:16 pm|    Updated: February 13, 2021 9:16 pm

Kolkata: Man arrested from Dum Dum station with Gold of more than rs 30 lakhs | Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি

সুব্রত বিশ্বাস: দমদমকে করিডর করে বাংলাদেশ (Bangladesh) থেকে সোনা ঢুকছে কলকাতায়। এই খবর পেতেই শনিবার দমদম স্টেশনে (DumDum) শুরু হয় তল্লাশি। আর তাতেই মেলে বড়সড় সাফল্য। স্টেশন থেকে এক সন্দেহজনক ব্যক্তিকে ধরে তার কাছ থেকে ছ’টি সোনার বিস্কুট পাওয়া যায়। ওজন ছ’শো গ্রাম। মূল্য ত্রিশ লক্ষ টাকারও বেশি।

পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত ব্যক্তি বনগাঁ লোকালে এসে দমদম স্টেশনে নেমে মেট্রো ধরতে যাওয়ার আগেই ধরা পড়ে যায়। রেল পুলিশ সুপার বি ভি চন্দ্রশেখর জানান, ধৃত ব্যক্তি আসলে কেরিয়ার। টাকার বিনিময়ে নির্দিষ্ট স্থান থেকে নির্ধারিত জায়গায় ওই সোনা পৌঁছে দেওয়াই কাজ ছিল তার। ধৃতকে জেরা করে জানার চেষ্টা চলছে সোনার বিস্কুটগুলি কোথায় নিয়ে যাচ্ছিল সে। গোটা বিষয়টি নিয়ে দমদম রেল পুলিশ মুখে কুলুপ আটলেও সূত্রের খবর, বাংলাদেশ থেকে সোনার বিস্কুটগুলি কলকাতা নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল।

[আরও পড়ুন: অসুস্থ যাত্রী, বাইপাসে গ্রিন করিডর তৈরি করে ৭ মিনিটে যাত্রী সুদ্ধ বাস নিয়ে হাসপাতালে পুলিশ]

বাংলাদেশ থেকে নানা সময় যে প্রচুর পরিমাণ সোনা এদেশে আসে, তার বেশিরভাগটাই দমদম নামিয়ে নেওয়া হয়। শিয়ালদহের (Sealdah Station) মতো জনবহুল স্টেশনের থেকে পাচারকারীরা বেশি নিরাপদ দমদমকেই মনে করে। ফলে সেই রুটই পাচারের মূল ফটক করে নিয়েছে বলে পুলিশের একটি মহলের অনুমান। রেল পুলিশের সুপার জানিয়েছে, সামনেই নির্বাচন সেই লক্ষে যাত্রীদের উপর নজর রাখা হচ্ছিল। বনগাঁ থেকে দমদমে এক যাত্রী নামার পরই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। তার কাছের ব্যাগ থেকে উদ্ধার হয় ছ’টি সোনার বিস্কুট। প্রতিটির ওজন একশো গ্রাম। দাম ৩০ লক্ষ টাকার মতো। ধৃত যুবকের নাম কমলেশ রায়। বনগাঁ (Bongaon) পল্লিশ্রী এলাকার বাসিন্দা।

[আরও পড়ুন: লিভার দিয়েও বাঁচাতে পারলেন না স্ত্রী, অকালে চলে গেলেন হাওড়া ডিভিশনের ‘বাঙালিবাবু’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে