BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিহার থেকে উদ্ধার কলকাতার তিন নাবালিকা, নারী পাচারচক্রের পর্দাফাঁস

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 7, 2018 12:10 pm|    Updated: January 7, 2018 12:10 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অপহরণের তদন্ত করতে গিয়ে বড়সড় নারী পাচারচক্রের পর্দা ফাঁস শহরে। এই ঘটনায় বিহার থেকে দক্ষিণ কলকাতার তিন নাবালিকাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। পাচারচক্রে জড়িত থাকার সন্দেহে বড়বাজার থেকে ১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধৃতের নাম লক্ষী মাহাতো। খুব শিগগির ধৃতকে আদালতে তোলা হবে। পাচারচক্রের ঘটনায় আরও কে কে যুক্ত রয়েছে তা জানতে ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ। পাচারকারীদের শাস্তির দাবি করেছে নাবালিকার পরিবার।

[কাশ্মীর নিয়ে ফের বিতর্কিত মন্তব্য চিদম্বরমের, পালটা আক্রমণে বিজেপি]

জানা গিয়েছে, কাজ ও টাকার লোভ দেখিয়েই কলকাতা থেকে নাবালিকাদের নিয়ে যাওয়া হত। নিম্নবিত্ত পরিবারের মেয়েদেরকেই টার্গেট করত আড়কাঠিরা। টাকার লোভ দেখিয়ে চলত মগজধোলাই। কাজ দেওয়ার নাম করে দক্ষিণ কলকাতার বিভিন্ন এলাকা থেকে নাবালিকাদের নিয়ে যাওয়া হত। অভিযোগ, কলকাতা থেকে নিয়ে গিয়ে বিহার ও উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন, জলসা, বিয়েবাড়ি, ব্যাচেলর পার্টিতে নাচতে বাধ্য করত ওই নাবালিকাদের। কেউ কেউ স্বেচ্ছায় নাচ করতে রাজি হয়ে যেত। তবে নাচতে না চাইলে জোর করে নাচানো হত।

প্রসঙ্গত, কালীঘাট থানায় ১৮ ডিসেম্বর মেয়ে নিখোঁজের অভিযোগ দায়ের করেন এক গৃহবধূ। অভিযোগকারী পরিবারের তরফে জানানো হয়, বন্ধুর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে গিয়ে মেয়ে আর বাড়ি ফেরেনি। পরের দিনই থানায় অভিোগ দায়ের হয়। তাদের নাবালিকা মেয়ে বাড়ি থেকে কোথাও চলে গেছে। বা কেউ তাকে নিয়ে গিয়েছে। সেই নিখোঁজ মেয়ের তদন্তে নেমেই নারী পাচারচক্রের হদিশ পায় পুলিশ। সূত্র ধরে অভিযান চালিয়ে রাজ্যের তিন নাবালিকাকে বিহার থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। পাচারচক্রে জড়িত সন্দেহে বড়বাজার থেকে গ্রেপ্তার হয়েছে লক্ষী মাহাতো। পাচারচক্রের মাথাদের খোঁজ পেতে ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

[AK47-সহ কাশ্মীরে গ্রেপ্তার সন্দেহভাজন লস্কর জঙ্গি]

নিখোঁজ নাবালিকার মা জানিয়েছেন, ১১ দিন ধরে মেয়ে নিখোঁজ ছিল। পুলিশ আজ মেয়েকে খুঁজে এনেছে। আমাদের পরিবারের সঙ্গে যে ঘটনা ঘটেছে তা যেন আর কারওর সঙ্গে না ঘটে। সেজন্যই পাচারকারীদের উপযুক্ত শাস্তি চাই।

[মাত্র সাত ঘণ্টায় তৈরি হল রেলসেতু! কোথায় জানেন?]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement