BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

গোলমাল পাকাতে জুড়ি নেই, শহরে ভোটের আগে পুলিশের নজরে ‘ট্রাবল মংগার’রা

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 23, 2019 12:00 pm|    Updated: April 23, 2019 12:00 pm

An Images

অর্ণব আইচ: ভোটের সময় গোলমাল পাকাতে তাদের জুড়ি নেই। পাড়ায় পাড়ায় বাইক নিয়ে ঘুরে বেড়িয়ে হুমকি দেওয়া তাদের কাছে জলভাত। এমনকী, ভোটের দিনও সঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ঝামেলা করতে পারে তারা। পুলিশের পোশাকি ভাষায় ‘ট্রাবল মংগার’। লোকসভা ভোটের আগে তাদের সন্ধানেই পুলিশ। লালবাজারের মতে, এই ‘ট্রাবল মংগার’দের আগেভাগে পাকড়াও করতে পারলে কলকাতায় ভোট শান্তিপূর্ণ হবে। সেই কারণে ইতিমধ্যেই শহরের ‘ট্রাবল মংগার’দের তালিকা তৈরি করেছেন লালবাজারের গোয়েন্দারা।

লালবাজারের এক কর্তা জানিয়েছেন, ভোটের সময় বা আগে বেশি গোলমাল করতে পারে, এমন প্রায় ৮০ জনের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। এ ছাড়াও আরও প্রায় সমসংখ্যক দুষ্কৃতীর তালিকা তৈরি করা হয়েছে, যারা অত বড় না হলেও ‘দাদা’দের সঙ্গে গিয়ে গোলমালের চেষ্টা করতে পারে। পুলিশ জানিয়েছে, কলকাতা পুলিশের প্রত্যেকটি থানাই ‘রাফ রেজিস্টার’ তৈরি করে রাখে। নিজের এলাকার দুষ্কৃতী বা যাদের বিরুদ্ধে একাধিকবার গোলমাল করার অভিযোগ রয়েছে, তাদের নামের তালিকা তৈরি করে রাখা হয় ‘রাফ রেজিস্টার’-এ। তাদের মধ্যে একটি অংশ রয়েছে, যারা ভোটের সময়ও গোলমাল করতে পারে বলে ধারণা পুলিশের। এ ছাড়াও গত কয়েকটি ভোটের সময় শহরে যারা গোলমাল করেছিল বলে অভিযোগ, তাদের নামের তালিকাও পুলিশ তৈরি করে। দু’টি মিলিয়েই এই লোকসভা ভোটে যারা গোলমাল করতে পারে, সেই ‘ট্রাবল মংগার’দের তালিকা তৈরি করেছে লালবাজারের গোয়েন্দা বিভাগ। এক গোয়েন্দা আধিকারিক জানান, এই তালিকা তৈরি করতে গিয়ে দেখা গিয়েছে, কলকাতার মূলত তিনটি এলাকা পূর্ব কলকাতা, দক্ষিণ পূর্ব কলকাতা ও বন্দর এলাকায় ‘ট্রাবল মংগার’দের সংখ্যা কিছুটা বেশি। আবার মধ্য কলকাতা, দক্ষিণ শহরতলি-সহ অন্যান্য এলাকাগুলির দুষ্কৃতীদের তালিকাও রয়েছে এর মধ্যে।

[আরও পড়ুন: দুর্ঘটনা ঘিরে তৃণমূলের ‘দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ’ বেলুড়ে, থানার ভিতরেই চলল গুলি]

আগের ভোটগুলিতে পূর্ব কলকাতার বেলেঘাটা, ফুলবাগান, এন্টালি-সহ কয়েকটি জায়গায় গোলমাল হয়েছে। গত পুরসভা ভোটে মধ্য কলকাতার গিরিশ পার্কে বড় ধরনের গোলমাল হয়। অভিযোগ, কলকাতার এক সময়ের ‘ডন’ গোপাল তিওয়ারির নির্দেশে গিরিশ পার্ক এলাকায় গুলি চালায় তার সঙ্গীরা। গুলিতে এক পুলিশ অফিসার আহত হন। সেই অভিযোগে গোপাল তিওয়ারি ও তার সঙ্গীদের গ্রেপ্তার করা হয়। ওই ঘটনার পর থেকে ভোটের সময় যারা গোলমাল করতে পারে, তাদের তালিকা তৈরির জন্য আরও বেশি গুরুত্ব দেন লালবাজারের গোয়েন্দারা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement