৭ শ্রাবণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অর্ণব আইচ: মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে দিনের পর দিন দশম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল গৃহশিক্ষকের বিরুদ্ধে। অভিযুক্তের নাম রাজীব চক্রবর্তী। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে বাঁশদ্রোণী থানার পুলিশ। মঙ্গলবারই আলিপুর আদালতে তোলা হবে তাকে। সূত্রের খবর, রাজীবের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে দু’টি কার্তুজ। 

[আরও পড়ুন: মঙ্গলবার ভিজতে পারে কলকাতা, আগামী চারদিন ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস উত্তরবঙ্গে]

খাস কলকাতার নেতাজিনগর এলাকায় নিজের বাড়িতেই কোচিং সেন্টার রয়েছে রাজীব চক্রবর্তী নামে ওই ব্যক্তির। বেশ কিছুদিন ধরে রাজীবের কাছে প্রাইভেট টিউশন নিতে শুরু করে নির্যাতিতা কিশোরী। অভিযোগ, একাধিকবার বাড়ি ফাঁকা থাকার সুযোগে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে রাজীব। এ বিষয়টি কাউকে জানালে তাকে খুনের হুমকিও দেয় অভিযুক্ত। ফলে আতঙ্কে কাউকে কিছু জানায়নি ওই পড়ুয়া।

রবিবার নাবালিকার আচরণে সন্দেহ হয় তার বাবা-মায়ের। সেই সময় কিশোরীকে চেপে ধরতেই সে গোটা ঘটনাটি তাঁদের জানায়। এরপরই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে বাঁশদ্রোণী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতার পরিবার। নাবালিকার থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই অভিযুক্তের নেতাজিনগরের বাড়িতে হানা দেয় পুলিশ। সেখান থেকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে অভিযুক্তকে।

জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত শিক্ষক রাজীব চক্রবর্তী বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে ২টি কার্তুজ। পুলিশের দাবি, জেরায় অভিযুক্ত স্বীকার করেছে শুধু ওই ছাত্রী নয়, আরও অনেক ছাত্রীকে ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে সে। তবে অন্য কোনও ছাত্রী এখনও অভিযুক্তের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেনি বলে জানিয়েছে পুলিশ। মঙ্গলবারই অভিযুক্তকে আদলতে পেশ করা হবে। পুলিশ সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই অভিযুক্তকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গিয়েছে। মঙ্গলবার যদি তাকে আদালত পুলিশি হেফাজত দেয়, তবে রাজীবকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আরও তথ্য পাওয়া যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। তদন্তের স্বার্থে অভিযুক্তের অন্য ছাত্রীদের সঙ্গেও কথা বলতে পারেন বলে জানিয়েছেন তদন্তকারীরা।

[আরও পড়ুন: ছেলের অভিযোগে মাদ্রাসায় ঢুকে পড়ুয়াকে মারধর বাবার, ধুন্ধুমার তেহট্টে

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং