BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

১৫০ বছর পর ‘সুপার ব্লু ব্লাড মুন’, রক্তাভ চাঁদে পড়বে গ্রহণের ছায়া

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 29, 2018 1:26 pm|    Updated: January 29, 2018 1:26 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চোখের সামনে আকাশে উঠবে রক্তবর্ণ চাঁদ। বদলে যাবে চাঁদের রূপ। এক অঙ্গে চাঁদের যে কত রূপ, তা আর স্রেফ কবিকল্পনার বিষয় নিয়ে। বহরূপেই ধরা দেবে চন্দ্রমা। অনেক বছর পর এক বিরল মুহূর্ত চাক্ষুষ করতে চলেছেন দেশবাসী। আগামী ৩১ জানুয়ারি অর্থাৎ বুধবারই এই মহাজাগতিক মুহূর্তের সাক্ষী থাকবেন পৃথিবীর মানুষ। রাশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, চিনের মতো দেশের পাশাপাশি ভারত থেকেও এই দৃশ্য দেখা যাবে।

 এই পার্কে এলে রাগ-অভিমান গলে জল, মুখে ফুটবে হাসি ]

বিজ্ঞানীদের পরিভাষায় এই ঘটনাকে বলা হচ্ছে ‘সুপার ব্লু ব্লাড মুন’। আসলে তিনটি মহাজাগতিক ঘটনার সমন্বয় এটি। ‘সুপার মুন’ অর্থে চাঁদ যখন পৃথিবীর সবথেকে কাছাকাছি এসে ধরা দেবে। ‘ব্লু মুন’ কথার অর্থ একই মাসে যখন দ্বিতীয়বার পূর্ণিমা হয়। আর ‘ব্লাড মুন’ মানে যখন চাঁদ রক্তবর্ণ ধারণ করে। ৩১ জানুয়ারি একযোগে হবে এই তিন মহাজাগতিক ঘটনা। অর্থাৎ রক্তাভ চাঁদ দেখা যাবে আকাশে। এবং সুপার মুন হওয়ার কারণে তা আকারে বেশ বড় হিসেবেই দেখা যাবে। এই বৃদ্ধির পরিমাণ হবে সাত শতাংশ। অর্থাৎ সাধারণভাবে চাঁদকে যে আকারের দেখা দেখা যায় তার থেকে সাত শতাংশ বড় আকারের চাঁদ দেখা যাবে সেদিন। চাঁদের ঔজ্জ্বল্যও হবে অনেকটা বেশি।

৯৯-এর যুবতীকে ‘জন্মদিন’ উপহার দিল এই হাসপাতাল ]

মহাজাগতিক এই ঘটনা নিয়ে উচ্ছ্বসিত বিজ্ঞানীরা। আগ্রহীরা ভিড় জমাচ্ছেন আর্যভট্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউট অফ অবজারভেশনাল সায়েন্স নামক সংস্থায়। নৈনিতালের এই সংস্থা থেকেই সবথেকে ভাল এই দৃশ্য দেখা যাবে। কুয়াশা কেটে যাওয়ার কারণে আকাশ এই সময় পরিষ্কার থাকবে। ফলে রক্তাভ চাঁদ খুব ভালভাবেই ধরা দেবে। এই সঙ্গে শুরু হবে পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ। পৃথিবীর ছায়া পড়বে রক্তাভ চাঁদের উপর। দিল্লিতে এই দৃশ্য দেখা যাবে সন্ধে ৫.৫৩ থেকে। দেখা যাবে কলকাতা থেকেও। সন্ধে ৬ টার খানিকটা পর থেকেই এই বিরল দৃশ্যের সাক্ষী থাকতে পারবেন আগ্রহীরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement