BREAKING NEWS

২৯ বৈশাখ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘ভুল’ জায়গায় পার্কিং, মরণাপন্ন ক্যানসার রোগীর গাড়ির চাকায় কাঁটা আটকে টাকা দাবি পুলিশের

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 7, 2020 10:33 pm|    Updated: November 7, 2020 10:33 pm

Kolkata traffic police allegedly demands money from cancer patient ।Sangbad Pratidin

অভিরূপ দাস: মরণাপন্ন ক্যানসার রোগীর গাড়ি আটকে টাকা চাওয়ার অভিযোগ উঠল ট্রাফিক পুলিশের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল এসএসকেএম হাসপাতাল (SSKM Hospital) চত্বরে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার দুপুরে। বর্ধমান থেকে ক্যানসারের রেডিয়েশন দিতে পিজি হাসপাতালে এসেছিলেন শান্তিপদ দাস। পঁয়ষট্টি বছরের বৃদ্ধ দ্রুত রেডিয়েশন দিতে চলে যান। ফিরে এসে গাড়িতে উঠতে গিয়ে দেখেন গাড়ির চাকায় কাঁটা লাগিয়ে দিয়েছে পুলিশ। অভিযোগ, পুলিশ তাদের জানায় গাড়ি ভুল জায়গায় পার্কিং করা হয়েছে। টাকা জমা দিতে হবে।পরিবারের অভিযোগ, আমরা বারবার বলি গাড়িতে ক্যানসার রোগী রয়েছে। দয়া করে ছেড়ে দিন। কিন্তু রোগীকে দেখেও অমানবিক আচরণ বন্ধ করেনি পুলিশ।

শান্তিপদবাবুর আত্মীয় লালু দাস জানান, “উনি মুখের ক্যানসারে (Cancer) আক্রান্ত। মরণাপন্ন অবস্থা। বর্ধমানের গ্রামের বাড়ি থেকে আমরা অনেক কষ্ট করে গাড়ি করে নিয়ে এসেছিলাম। রেডিয়েশন দেওয়া হয় এসএসকেএম-এ। পুলিশ এসে বলে, এখানে গাড়ি পার্কিং করা যায় না। টাকা লাগবে। টাকা দিতে আপত্তি করাতেই, গাড়িতে কাঁটা লাগিয়ে দিয়ে চলে যান ওই পুলিশকর্মী। আমরা ওই মরণাপন্ন রোগীকে নিয়ে অসহায় হয়ে বসে আছি। ফিরতে পারছি না।”

[আরও পড়ুন: ট্রেন চালু হলে যাত্রীকেই নিতে হবে নিজের সুরক্ষার দায়, কী কী ব্যবস্থা নিচ্ছে রেল?]

টানা ৪ ঘণ্টা ওভাবে গাড়ির মধ্যেই বসে থাকতে হয় তাঁদের। ৪ ঘন্টা পর সেই কাঁটা খোলে পুলিশ (Police)। হয়রানির চূড়ান্ত শিকার হতে হয় ওই রোগীর পরিবারকে। ক্ষুব্ধ রোগীর পরিবার জানিয়েছেন, মরণাপন্ন ক্যানসার রোগী গাড়ির ভিতরে পড়ে রয়েছেন। তবু পুলিশ এতটুকু দয়ামায়া দেখালেন না। এদিকে এসএসকেএম হাসপাতাল চত্বরে এমন অমানবিক দৃশ্য দেখে স্তম্ভিত অন্যান্য রোগীর আত্মীয়রা।

[আরও পড়ুন: ২০২১-এর নির্বাচনে লক্ষ্য যুব ও মহিলা ভোটার, বড়সড় কর্মসূচি নিল বঙ্গ বিজেপি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement