১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

২০২১-এর নির্বাচনে লক্ষ্য যুব ও মহিলা ভোটার, বড়সড় কর্মসূচি নিল বঙ্গ বিজেপি

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 7, 2020 8:38 pm|    Updated: November 7, 2020 8:41 pm

An Images

ফাইল ফটো

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: অমিত শাহ (Amit Shah) সফর শেষ করে চলে যাওয়ার পরই তাঁর নির্দেশ ও পরামর্শ মতো ২০২১-কে সামনে রেখে সংগঠন গোছানো এবং যুব ও মহিলাদের আরও বেশি করে যুক্ত করতে বড়সড় কর্মসূচি নিল বিজেপি (BJP)। লক্ষ্য, এবার যুব ও মহিলা ভোটার।

১২ জানুয়ারি থেকে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত যুব সপ্তাহ পালন করবে বিজেপির যুব মোর্চা। সেই উপলক্ষে নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে বিরাট যুব সমাবেশের আয়োজন করা হচ্ছে। নাম দেওয়া হবে স্বামীজি থেকে নেতাজি যুব যোদ্ধা সমাবেশ। যেখানে আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (PM Modi)। যুব মোর্চার রাজ্য সহ-সভাপতি শঙ্কুদেব পাণ্ডা জানালেন, প্রধানমন্ত্রী যেদিন সময় দেবেন সেদিন এই যুব সমাবেশ হবে। পাশাপাশি নতুন ভোটারদের নিয়ে বিধানসভা ভিত্তিক সম্মেলন করা হবে। বিজেপিই যে একমাত্র বিকল্প এবং রাজ্যের সুরক্ষা-উন্নয়ন, বেকারদের কর্মসংস্থানের স্বার্থে প্রথম ভোট যে মোদিকেই- এটাই যুব সমাজ তথা নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরবে যুব মোর্চা। নতুন ভোটারদের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলা হবে।

[আরও পড়ুন: টুইটে ‘মিথ্যে’ কথা উল্লেখ, কাকলি ঘোষ দস্তিদারের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি দিলীপের]

এছাড়া, ভোটার তালিকায় তাঁদের নাম উঠল কি না, তাঁদের সুবিধা অসুবিধার কথা জানবে বিজেপির যুব সংগঠন। নতুন ভোটাররাই হবে বিজেপির লক্ষ্য। পাশাপাশি হবে ‘ওয়ান বুথ ইলেভেন ইউথ’। অর্থাৎ প্রতি বুথে ১১ জন যুব থাকবেন। যাঁরা টক্কর দেবেন তৃণমূলের সঙ্গে। একেবারে ফুটবল ও ক্রিকেট টিমের মতো বিধানসভা নির্বাচনে বুথে বুথে এই ১১ জনের টিম কাজ করবে। শঙ্কুদেব পাণ্ডার বক্তব্য, “তৃণমূলের টিম পি কে যুবদের টার্গেট করেছে। তাদের ইউথ ইন পলিটিক্স ও যুব শক্তি এই দুটি কর্মসূচি ফ্লপ।” এবার বুথে বুথে আমরা যুবদের নিয়ে বাংলায় মোদিজির নেতৃত্বে পরিবর্তন আনব।” এখানেই শেষ নয়, ৮ ডিসেম্বর উত্তরকন্যা অভিযান কর্মসূচি রয়েছে যুব মোর্চার। এই পরিকল্পনা অবশ্য আগেই নেওয়া হয়। তবে দিনটি এদিন চূড়ান্ত হয়েছে।

শনিবার যুব মোর্চার রাজ্য নেতাদের নিয়ে বৈঠকে আগামী কর্মসূচি ও রণকৌশল ও প্রচারের রূপরেখা ঠিক হয়। বৈঠকে ছিলেন রাজ্যের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়, কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা, রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু, যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি সৌমিত্র খাঁ, সহ-সভাপতি শঙ্কুদেব পাণ্ডা প্রমুখ।

[আরও পড়ুন: তৃণমূল গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের নেতৃত্বে ‘হামলা’, বিজেপি ও পুলিশ সংঘর্ষে রণক্ষেত্র হাওড়া]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement