BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আজ হচ্ছে না ‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসবে’র আরজির শুনানি, পুজো নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত পঞ্চমীতে

Published by: Paramita Paul |    Posted: October 20, 2020 1:13 pm|    Updated: October 21, 2020 1:33 pm

An Images

শুভঙ্কর বসু: দর্শকহীন পুজোর রায় পুনর্বিবেচনার আরজি নিয়ে হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে শহরের বিভিন্ন পুজো কমিটি নিয়ে তৈরি সংগঠন ‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসব’। মহাচতুর্থী নয়, মহাপঞ্চমী অর্থাৎ বুধবার এই আরজির শুনানি হবে কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে। মঙ্গলবার এই আরজির প্রেক্ষিতে রাজ্য সরকার-সহ মামলার সকলপক্ষকে নোটিস দেওয়া হয়েছে।

সোমবার সন্ধের পর আদালতের রায়ের কপি হাতে পায় পুজো কমিটিগুলি। এরপর রায় মেনে ব্যবস্থা করতে গিয়ে একাধিক সমস্যার সম্মুখীন হয় তারা। মণ্ডপে কতজন প্রবেশ করতে পারবেন তা রায়ে বেঁধে দিয়েছিল হাই কোর্ট। তাতে দেখা গিয়েছে ছোট মণ্ডপগুলির ক্ষেত্রে পুরোহিত-সহ সর্বাধিক ১৫ জন সদস্য ও বড় মণ্ডপের ক্ষেত্রে সর্বাধিক ৩০ জন প্রবেশ করতে পারবেন। অথচ পুরোহিতের সংখ্যাই কোথাও কোথাও পাঁচজন পর্যন্ত হতে পারে। ফলে সদস্য সংখ্যা কমে যাবে। এতে পুজোর আনুষাঙ্গিক কাজকর্ম সামাল দিতে সমস্যা হতে পারে বলে আশঙ্কা করছে পুজো কমিটিগুলি। কোথাও আবার মণ্ডপের সামনে ১০ মিটার ছাড়ার মতো জায়গা নেই।

এরপরই রায় পুনর্বিবেচনা ও কিছু বদল চেয়ে হাই কোর্টের দ্বারস্থ পুজো কমিটিগুলি। মঙ্গলবার দুপুরে শুনানির কথা থাকলেও, আইনি জটিলতায় তা সম্ভব হয়নি। পুজো কমিটিগুলির আইনজীবী তথা সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় আদালতের কাছে রিভিউ পিটিশন দাখিলের আরজি জানিয়েছেন। তাঁর যুক্তি, “হাই কোর্টের রায়ে বহু পুজো কমিটি একাধিক সমস্যার সম্মুখীন হয়েছে। ফলে এই রায় পুনর্বিবেচনা করা হোক।” তাঁদের পিটিশন গ্রহণ করেছে আদালত।    

[আরও পড়ুন: দর্শকহীন পুজোয় আপত্তি, হাই কোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আদালতে যাচ্ছে ‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসব’]

সোমবারের রায়ে একাধিক বদল চেয়েছে ফোরাম ফর দুর্গোৎসব। তাদের কথায়, গত তিন মাস ধরে কোভিডের কথা মাথায় রেখে প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। প্রতিটি মণ্ডপে দর্শনার্থীদের নিরাপত্তার পর্যাপ্ত ব্যবস্থাও গ্রহণ করা হয়েছে। প্রয়োজনে বিচারপতিদের উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতার বেশকিছু পুজো পরিদর্শন করারও আরজি জানিয়েছেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শাশ্বত বসু। প্রসঙ্গত, করোনার কথা মাথায় রেখে চলতি বছর পুজোয় মণ্ডপে কাউকে ঢুকতে দেওয়া হবে না বলেই জানিয়ে দেয় কলকাতা হাই কোর্ট। বিচারক জানান, ১৫ থেকে ২৫ জন পুজো উদ্যোক্তা শুধু মণ্ডপে প্রবেশ করতে পারবেন। সমস্ত পুজো মণ্ডপের বাইরে থাকবে ‘নো এন্ট্রি’ বোর্ড। 

[আরও পড়ুন: মণ্ডপে নো এন্ট্রি, পুজোর পাস কিনে থাকলে টাকা ফেরত পাবেন? জেনে নিন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement