৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দক্ষিণ কলকাতার মানুষের জন্য সুখবর। পুজোর আগেই খুলে যেতে পারে প্রিন্স আনোয়ার শাহ রোড এবং করুণাময়ী এলাকায় টালি খালের উপর দু’টি সেতু। এর ফলে বেহালা, টালিগঞ্জ, করুণাময়ী ও হরিদেবপুর এলাকার মানুষ যানজটের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবে। টালি নালার উপর দিয়ে তৈরি হয়েছে দু’টি সেতু। সেগুলোই খুলবে পুজোর আগে।

[ আরও পড়ুন: নারদ কাণ্ডে ‘ভয়েস স্যাম্পল’ দিতে সিবিআই দপ্তরে গেলেন শোভন চট্টোপাধ্যায় ]

মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ার পর বিকল্প হিসাবে নগরোন্নয়ন দপ্তর আনোয়ার শাহ রোড এবং করুণাময়ী এলাকায় টালি নালার উপর দু’টি সেতু নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়। বুধবার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা ও কলকাতার শীর্ষ পুলিশ কর্তারা সেতু দু’টি দেখতে যান। সঙ্গে ছিলেন কলকাতার মেয়র ও রাজ্য নগরোন্নয় দপ্তরের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তিনি জানান, পুজোর আগেই সেতুগুলি যানচলাচলের উপযোগী করা হবে। তবে এখনও কিছু কাজ বাকি রয়েছে। কিন্তু করুণাময়ী সেতুর এক প্রান্তে একটি পুরনো মন্দির থাকায় ওই প্রান্তটি সরু। বিষয়টি নিয়ে কলকাতা পুলিশের সঙ্গেও কথাবার্তা হয় মেয়রের। অন্যদিকে ইজাজতুল্লা লেনের দিকটিতেও একটি পুজো ঘিরে সমস্যা রয়েছে। পুজোটি সেতুর অ্যাপ্রোচ রোডের উপর হয়। তবে মেয়র জানিয়েছেন, পুজোর জন্য অন্য জায়গা দেওয়া হবে। সম্ভবত টলি ক্লাবের জমিতেই স্থানান্তরিত করা হবে ওই পুজো।

[ আরও পড়ুন: বিজেপির সিইএসসি ভবন অভিযান ঘিরে রণক্ষেত্র সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ ]

বিষয়টি নিয়ে কলকাতা পুরসভার এক আধিকারিক জানিয়েছেন, নালার উপর সেতু তৈরির কাজ কয়েক মাস আগেই শেষ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু অ্যাপ্রোচ রোডের কাজ বন্ধ ছিল। এখন সেই কাজ পূর্ণ উদ্যমে শুরু হয়ে গিয়েছে। সব ঠিক থাকলে পুজোর আগেই শেষ হয়ে যাবে কাজ। তারপর জনসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হবে সেতু দু’টি। তবে গাড়ি চলাচলের জন্য টলি ক্লাবের বাউন্ডারি দেওয়াল ভেঙে একটু পিছিয়ে দিলে সুবিধে হবে। যদিও শোনা গিয়েছে টলি ক্লাবের তরফে নাকি কোনও আপত্তি জানানো হয়নি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং