৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: কাটমানি ইস্যুকেই এখন হাতিয়ার করে শাসকদলের বিরুদ্ধে লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপি। এই ইস্যুতে এবার কলকাতায় পথে নামছে তারা। ‘মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি চলো’ অভিযান কর্মসূচি নিতে চলেছে গেরুয়া শিবির।

আগামী সপ্তাহে এই অভিযান হবে বলে পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। তবে কর্মসূচির দিনক্ষণ নিয়ে বুধবার সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। দলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু বলেন, “কাটমানি ফেরত চেয়ে স্থানীয়ভাবে ২৫ শতাংশ টাকা মানুষ ফেরত নিচ্ছে। কিন্তু বাকি ৭৫ শতাংশ টাকা কোথায় তা জানতেই আমরা মুখ্যমন্ত্রীর কাছে যাব। কিছু পাওনাদারকেও নিয়ে যাওয়া হবে।” শাসকদল বলছে কাটমানির টাকা ফেরতের বিষয়টি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগ মহৎ। এটাকে ভুল ব্যাখ্যা করছে বিরোধীরা। যদিও শাসকদলের এই যুক্তি বা ব্যাখ্যা মানতে নারাজ বিরোধীরা। কাটমানি ইস্যুতে বিধানসভায় বাম-কংগ্রেস একযোগে সরব হয়েছে। অধিবেশন থেকে পরপর দু’দিন ওয়াক আউটও করেছে তারা। কমিশন গঠন ও শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি জানিয়েছেন বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান ও বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী। বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রীর বিবৃতিও দাবি করেছেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: সমন্বয়ের অভাব, গ্রিন করিডর সত্বেও কলকাতায় যানজটে ফেঁসে রোগী]

বিজেপি পরিষদীয় দল বুধবার থেকে সরব হবে বিধানসভায়। ইতিমধ্যেই কাটমানি কাণ্ডে সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়েছেন বিজেপির পরিষদীয় নেতা মনোজ টিগ্গা। তৃণমূল নেতাদের থেকে কাটমানি আদায়ে সাধারণ মানুষকে সাহায্য করার কথা জানিয়েছে বিজেপির যুব সংগঠন যুব মোর্চা। এবার রাজ্য বিজেপির তরফেও জানিয়ে দেওয়া হল, কাটমানি আদায়ে মানুষের পাশে থেকে সাহায্য করবে দল। মঙ্গলবার দলের রাজ্য দপ্তরে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বিজেপির সহ-সভাপতি জয়প্রকাশ মজুমদারের বক্তব্য, যাঁরা তৃণমূল নেতাদের টাকা দিয়ে কাজ পেয়েছেন তাঁরা ভয় পাবেন না। কাটমানি আদায়ে যান। বিজেপি নেতৃত্ব সাধারণ মানুষের সঙ্গে আছে। জয়প্রকাশের কথায়, কাটমানি ফেরতের দাবিতে যে আন্দোলন চলছে তাতে সাধারণ মানুষকে সাহস জোগানো ও সঠিক রাস্তা দেখানোর কাজটা বিজেপি করছে। ইতিমধ্যেই জেলায় জেলায় দলীয় কর্মসূচিতে কাটমানি ইস্যুকে হাতিয়ার করে শাসকদলের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। কাটমানি ইস্যুতে মঙ্গলবার দিল্লিতে সংসদে সরব হয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষও।

[আরও পড়ুন: গত ৫ বছর ধরে দেশে ‘সুপার এমার্জেন্সি’! টুইট করে মোদিকে নিশানা মমতার]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং