৩ শ্রাবণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৩ শ্রাবণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে ভবিষ্যতে গণতন্ত্রকে আরও সুরক্ষিত করতে হবে৷ জরুরি অবস্থার ৪৪তম বর্ষে সেই সময়কে স্মরণ করে এমনই টুইট করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ টুইটারে তিনি আরও লিখলেন, ‘‘গত ৫ বছর ধরে দেশে ‘সুপার এমার্জেন্সি’ চলছে৷ ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে আমাদের উচিত দেশের গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করার জন্য লড়াই করা৷’’

[আরও পড়ুন: ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে অস্বীকার, খাস কলকাতায় ট্রেন থেকে ধাক্কা মুসলিম যুবককে]

১৯৭৫ সালের ২৫ জুন৷ তৎকালীন ইন্দিরা গান্ধী সরকার দেশের অরাজকতার পরিপ্রেক্ষিতে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করেছিল৷ সেসময় বিরোধী শক্তির উত্থানকে দমন করতে তৎকালীন শাসকের ভূমিকা দেশের ইতিহাসে এক কলঙ্কিত অধ্যায় হয়ে রয়েছে৷ এতবছর পরও দেশবাসী সেই অন্ধকার দিনের কথা ভুলতে পারেননি৷ এনিয়ে প্রতি বছরই বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের তরফে বিভিন্ন রকম প্রতিক্রিয়া মেলে৷ এমনকী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের মতামত দিয়ে থাকেন৷ এবারও তার ব্যতিক্রম হল না৷

বিগত বছরগুলিতে কেন্দ্রে মোদি সরকারের সমালোচনায় মমতার মুখে একাধিকবার শোনা গিয়েছে ‘সুপার এমার্জেন্সি’র কথা৷ তাঁর দাবি, মোদি সরকারের আমলে দেশের পরিস্থিতি ৭৫-এর জরুরি পরিস্থিতির থেকেও ভয়ংকর৷ আর সেই পরিস্থিতিকেই তিনি ‘সুপার এমার্জেন্সি’ বলে চিহ্নিত করেছেন৷ আর এই পরিস্থিতি সামাল দিতে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী সমস্ত বিরোধী দলকেই একযোগে, হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে এসেছেন৷ এ বছর টুইটারে সেই একই আবেদন উঠে এল৷ ৭৫-এর জরুরি অবস্থার সময়ে বিরোধী শক্তিকে দমন করতে যেমন সক্রিয় ভূমিকা দেখা গিয়েছিল, তা গণতন্ত্রকেই দুর্বল করে দিয়েছিল বলে মনে করেন অনেকে৷ আর একথা উল্লেখ করে বারবার গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করার কথা বলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

[আরও পড়ুন: কলকাতায় ইসলামিক স্টেটের ছায়া, শিয়ালদহ-হাওড়া থেকে গ্রেপ্তার ৪ জঙ্গি]

দ্বিতীয়বারও দেশের ক্ষমতায় এসেছে মোদি সরকার৷ দেশজুড়ে গেরুয়া হাওয়া প্রবল৷ আঞ্চলিক দলগুলি আশানুরূপ ফল করতে পারেনি কোথাও৷ তা সত্ত্বেও বিজেপি বিরোধী লড়াই থেকে এতটুকুও পিছিয়ে আসছেন না বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ জরুরি অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে টুইটারে তার প্রমাণ বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞদের একাংশ৷      

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং