১ শ্রাবণ  ১৪২৬  বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অর্ণব আইচ: খোদ শহর কলকাতা থেকে গ্রেপ্তার চার জেএমবি জঙ্গি। শিয়ালদহ ও হাওড়া স্টেশন থেকে পৃথকভাবে এসটিএফ-এর হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে চার জন। ধৃতদের কাছ থেকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের নথি উদ্ধার করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। 

[আরও পড়ুন: মধ্যপ্রাচ্যে ফের যুদ্ধের মেঘ, ইরানের মিসাইল সিস্টেমে আঘাত হানল আমেরিকা]

জানা গিয়েছে, গোয়েন্দা সূত্রের ভিত্তিতে গত শনিবার দুই বাংলাদেশি জঙ্গিকে শিয়ালদহ স্টেশন থেকে গ্রেপ্তার করে কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স  (এসটিএফ)। তাদের জেরা করে মঙ্গলবার হাওড়া থেকে আরও দুই জেএমবি জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করেন এসটিএফ-এর আধিকারিকরা। ধৃতদের মধ্যে মহম্মদ জিয়াউর রহমান ও মামুনুর রশিদকে গ্রেপ্তার করা  শিয়ালদহ স্টেশনের পার্কিং থেকে। এরা দুজনেই বাংলাদেশের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে৷ এদের জেরা করে হাওড়া থেকে গ্রেপ্তার করা হয় মহম্মদ শাহিন আলম ও রবিউল ইসলামকে।  শাহিন আলম বাংলাদেশের বাসিন্দা। তবে  রবিউল ইসলাম বীরভূমের বলে এসটিএফ সূত্রে খবর। এদিন ব্যাঙ্কশাল আদালতে ধৃতদের তোলা হলে তাদের ৯ জুলাই পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। 

পশ্চিমবঙ্গে শরিয়ত আইন ও  খিলাফত প্রতিষ্ঠা করার উদ্দেশ্য নিয়েই জঙ্গিরা রাজ্যে  প্রবেশ  করেছিল। উল্লেখ্য, আগেই পোস্টার দিয়ে এরাজ্য এবং বাংলাদেশে হামলার হুঁশিয়ারি দিয়েছিল জঙ্গি সংগঠন আইএস৷ জানিয়েছিল, ‘‘শীঘ্রই আসছি, ইনশাল্লাহ…’৷ তারপর আরও একধাপ এগিয়ে তাদের সংগঠনের নয়া ‘আমির’ বা নেতা নিযুক্ত করে সন্ত্রাসবাদী সংগঠনটি৷আবু মহম্মদ আল বাঙালি নামের একজনকে পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের নেতা নিযুক্ত করে আইএস৷ এবং আবারও বড়সড় হামলার হুঁশিয়ারি দিয়েছিল সংগঠনটি৷

[আরও পড়ুন: কৃত্তিকার জন্য কয়েক পা, ছাত্রীর স্মরণে মৌন মিছিল জি ডি বিড়লার অভিভাবকদের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং