BREAKING NEWS

০২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মাঝেরহাট কাণ্ডের জের, কাজে গতি আনতে সব দপ্তরেই টেন্ডার কমিটি

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: September 18, 2018 4:23 pm|    Updated: September 18, 2018 4:23 pm

Majerhat bridge collapse: Govt alters tender process

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাঝেরহাট কাণ্ডের জের৷ কাজে গতি আনতে টেন্ডার প্রক্রিয়া বদলে ফেলল রাজ্য সরকার৷ সরকারি কাজের টেন্ডার অনুমোদনের জন্য আর অর্থ দপ্তরের অনুমতি নিতে হবে না৷ প্রতিটি দপ্তরে আলাদা টেন্ডার কমিটি গঠন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন৷ কমিটির প্রধান হবেন ন্যূনতম পদমর্যাদার অফিসার৷ টেন্ডার কমিটি সিদ্ধান্ত মেনে কাজের বরাত দেওয়া হবে৷

[ ভাঙতে শুরু করল জ্বলন্ত বাগরি, প্রবল আতঙ্কে স্থানীয়রা]

বাজারে যতই সুনাম থাকুক না কেন, আইনত কোনও সংস্থাকেই সরাসরি সরকারি কাজের বরাত দেওয়া যায় না৷ সরকার যখন রাস্তা কিংবা সেতু তৈরি বা অন্য কাজের দায়িত্ব ঠিকাদার সংস্থাকে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়, তখন সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে টেন্ডার ডাকতে হয়৷ টেন্ডারের মাধ্যমে কোনও একটি সংস্থা কাজের বরাত পায়৷ সময়সাপেক্ষ তো বটেই, টেন্ডার প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির অভিযোগও ওঠে৷ কখনও কখনও আবার টেন্ডারের জাঁতাকলে থমকে যায় উন্নয়ন বা রক্ষণাবেক্ষণের কাজ৷ মাঝেরহাট ব্রিজের ক্ষেত্রেও তেমনটাই হয়েছিল বলে অভিযোগ৷ গত ৪ সেপ্টেম্বর ভেঙে পড়ে মাঝেরহাট ব্রিজের একাংশ৷ মারা যান ৩ জন৷ আহত ২৪৷ ঘটনায় ব্রিজের রক্ষণাবেক্ষণ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে৷ তাই এবার সরকারি কাজে গতি আনতে টেন্ডার প্রক্রিয়া বদলে ফেলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷ নির্দেশিকা জারি করেছে সরকার৷

সরকারের যে দপ্তর কাজের বরাত দেবে, সেই দপ্তরই টেন্ডার ডাকে৷ কিন্তু, সেই টেন্ডার অনুমোদনের জন্য অর্থ দপ্তরের অনুমতি নিতে হয়৷ নয়া নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, প্রতিটি দপ্তরের টেন্ডার অনুমোদন জন্য একটি আলাদা কমিটি তৈরি করা হবে৷ কমিটির মাথায় থাকবেন ন্যূনতম পদমর্যাদার অফিসার৷ টেন্ডার পাশের পর যদি কোনও সমস্যা হয়, সেক্ষেত্রে টেন্ডার কমিটিকেই জবাবদিহি করতে হবে৷

[ বাগরিই কি বেশি ভয়াবহ? দুঃসহ স্মৃতি রোমন্থনে নন্দরামের মালিক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে