৬ শ্রাবণ  ১৪২৬  সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের শহরে উড়ালপুল বিপর্যয়। ব্যস্ত সময়ে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল মাঝেরহাটে ব্রিজের একাংশ। এখনও পর্যন্ত সরকারিভাবে মৃতের সংখ্যা ১। ব্রিজের রক্ষণাবেক্ষণের অভাবকেই দায়ী করেছেন বিরোধীরা। তদন্ত হওয়া প্রয়োজন বলে মন্তব্য করলেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীও। মঙ্গলবার বিকেলে দুর্ঘটনাগ্রস্ত মাঝেরহাট সেতু পরিদর্শনে যান তিনি। এদিকে শহরে এই বিপর্যয়ে টুইট করে শোকপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও।

[একে একে এমার্জেন্সিতে ঢুকছে রক্তাক্ত শরীর, SSKM-এ যুদ্ধকালীন তৎপরতা]

অপরিসর শহরে বাড়ছে জনসংখ্যা। গাড়ির সংখ্যাও বাড়ছে পাল্লা দিয়ে। কিন্তু নতুন রাস্তা তৈরি করা তো দূর, চালু রাস্তাগুলি সম্প্রসারণ করার মতোও জায়গা নেই। শহরের গতি বাড়াতে ভরসা ফ্লাইওভার কিংবা সেতু। কিন্তু, সেতুগুলির রক্ষণাবেক্ষণ ঠিকঠাক হচ্ছে তো? বছর দুয়েক আগে যখন পোস্তায় নির্মীয়মাণ উড়ালপুল ভেঙে পড়েছিল, তখনই প্রশ্ন উঠেছিল। বস্তুত, পোস্তাকাণ্ডের অনেক আগেই সেতু ভেঙে পড়ার ঘটনা ঘটেছিল শহরে। গভীর রাতে ভেঙে পড়েছিল উল্টোডাঙা ফ্লাইওভার। বরাতজোরে রক্ষা পেয়েছিলেন শহরবাসী। এদিকে আবার গত বছর পুজোর ঠিক মুখেই ফাটল দেখা গিয়েছিল বাঘাযতীন ফ্লাইওভারেও। আর মঙ্গলবার দুপুরে ভেঙে পড়ল মাঝেরহাট সেতু। শহরের অন্যতম ব্যস্ত সেতু এটি। দিনভর গাড়ি চলাচলের বিরাম নেই। এখনও পর্যন্ত সরকারিভাবে মৃতের সংখ্যা ৫।

 

[আতঙ্ক গ্রাস করেছে সাধারণ মানুষকে, অন্ধকার ও বৃষ্টিতে বাধাপ্রাপ্ত উদ্ধারকার্য]

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরেই মাঝেরহাট সেতুটির বেহালদশা। রক্ষণাবেক্ষণের নজর নেই প্রশাসনের। এই মাঝেরহাট সেতুর পাস দিয়ে আবার মেট্রো লাইন বসানোরও কাজ চলছে। মঙ্গলবার বিকেলে দুর্ঘটনাগ্রস্ত সেতুটি পরিদর্শনে যান রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। তিনি বলেন, কী কারণে সেতুটি ভেঙে পড়ল, তার তদন্ত হওয়া দরকার। এদিকে মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ার ঘটনায় টুইট করে দুঃখপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি লিখেছেন, ‘কলকাতায় সেতুর একাংশ ভেঙে ঘটনা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই। প্রার্থনা করি, আহতের দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন।’

[কেন ভেঙে পড়ল মাঝেরহাট ব্রিজ? কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা?]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং