Advertisement
Advertisement

সিপিএম-বিজেপির যোগসাজশেই বনধ হচ্ছে, অভিযোগ মমতার

সোমবারের বনধে রাজ্যকে সচল রাখতে কোমর বেঁধে নামছে প্রশাসন৷

Mamata accused CPM-BJP alliance behind the strike
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:November 26, 2016 7:19 pm
  • Updated:June 23, 2022 7:57 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  মানুষের কষ্টে তিনি পাশে রয়েছেন। কিন্তু বনধ সমর্থন করবেন না, কালীঘাটে কোর কমিটির বৈঠকে ফের জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বিজেপি ও সিপিএম-এর যোগসাজশেই এই বনধ হচ্ছে বলে অভিযোগ তৃণমূলনেত্রীর৷ তবে, এর শেষ দেখে ছাড়বেন বলে জানিয়েছেন তিনি৷

(বনধ ও প্রতিবাদ কর্মসূচির গেরোয় বিভ্রান্ত আমজনতা)

সোমবারের বনধে রাজ্যকে সচল রাখতে কোমর বেঁধে নামছে প্রশাসন৷ বনধের খোলা দিন থাকবে সমস্ত সরকারি অফিস, আদালত, স্কুল-কলেজ৷ ওই দিন রাজ্য সরকারি কর্মীদের উপস্থিতিও বাধ্যতামূলক করতে শনিবার বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে নবান্ন থেকে৷ জানানো হয়েছে, সোমবার অফিসে আসতে হবে সরকারি কর্মীদের৷ অন্যথায় মাইনে কাটা যাবে৷ সার্ভিস বুকেও ছেদ পড়বে৷ বনধের দিন রাস্তায় থাকবে পর্যাপ্ত যানবাহন৷ চলবে সরকারি বাস, ট্রাম৷

Advertisement

বনধের পাশাপাশি কেন্দ্রের নোট বদলের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ কর্মসূচীও এদিন কোর কমিটির বৈঠকে ঠিক করা হয়৷ জানা গিয়েছে, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা ও ত্রিপুরাতেও প্রতিবাদ কর্মসূচী পালন করবে তৃণমূল৷ পাটনায় কর্মসূচীর নেতৃত্ব দেবেন ফিরহাদ হাকিম, ঝাড়খণ্ডের দায়িত্বে থাকছেন অর্জুন সিং এবং বালেশ্বরের কর্মসূচি সামলাবেন শুভেন্দু অধিকারী ও মানস ভুইঞা৷ এছাড়াও ৬ ডিসেম্বর সংহতি দিবস পালনের ডাক দেওয়া হয়েছে৷

Advertisement

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ