০২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শুক্রবার ২০ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

প্রশাসন সামলে সাহিত্য সাধনা, বিশেষ বাংলা অ্যাকাডেমি পুরস্কারে সম্মানিত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: May 9, 2022 4:57 pm|    Updated: May 9, 2022 7:47 pm

Mamata Banerjee honored with Special Bangla Academy Award | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাহিত্যে বিশেষ অবদানের জন্য বাংলা অ্যাকাডেমি পুরস্কার পেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। সোমবার রবীন্দ্র সদনে রাজ্য সরকারের ‘কবি প্রণাম’ অনুষ্ঠানে তাঁকে বাংলা অ্যাকাডেমির প্রবর্তিত নতুন বিশেষ পুরস্কার দেওয়া হল। একই দিনে রবীন্দ্র পুরস্কারে সম্মানিত হলেন সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়, বিজ্ঞানী বিকাশ সিংহ ও প্রাবন্ধিক ফ্রাঁস ভট্টাচার্য।

এদিন ছিল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১তম জন্মজয়ন্তী। রবীন্দ্র সদনে ২৫ বৈশাখের সেই অনুষ্ঠানে বাংলা অ্যাকাডেমি পুরস্কারে সম্মানিত হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অনুষ্ঠানে ব্রাত্য বসু (Bratya Basu) জানান, এবারই প্রবর্তিত এই বিশেষ পুরস্কার দেওয়া হবে তিন বছর অন্তর। এই পুরস্কার পাবেন তাঁরা, যাঁরা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাজ করার পরেও নিরলস ভাবে সাহিত্য সাধনা করে চলেছেন। প্রথম বছর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘কবিতা বিতান’ কাব্যগ্রন্থকে স্মরণে রেখে এই পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে তাঁকে। এদিন মুখ্যমন্ত্রীর হয়ে এই পুরস্কার গ্রহণ করেন শিক্ষামন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: ‘দাঁড়িয়ে আছো তুমি আমার গানের ওপারে’, গান গেয়ে কবিগুরুকে শ্রদ্ধা মুখ্যমন্ত্রীর]

এছাড়াও সোমবার রবীন্দ্র পুরস্কার সম্মানিত করা হল বাংলার তিন কৃতি ব্যক্তিত্বকে। বাংলা সাহিত্যে বিশেষ অবদানের জন্য রবীন্দ্র পুরস্কার পেলেন সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়, বিজ্ঞান বিষয়ক লেখার জন্য পুরস্কৃত হলেন বিকাশ সিংহ, বাংলা ছাড়াও অন্য ভাষায় রচিত সমাজ বিষয়ক রচনার জন্য রবীন্দ্র পুরস্কার পেলেন ফ্রাঁস ভট্টাচার্য। শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় ও বিকাশ সিংহের হাতে পুরস্কার তুলে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফ্রাঁস ভট্টাচার্যের হয়ে মুখ্যমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন তাঁর আত্মীয়।

[আরও পড়ুন: কবিগুরুর নোবেল চুরি অসম্মানের, উদ্ধার না হওয়া আরও লজ্জার! দুঃখপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর]

এইসঙ্গে এদিনই সন্তোষ ট্রফিতে দারুণ খেলা বাংলার দুই ফুটবলারের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেওয়া হল রাজ্য সরকারের তরফে। এবার সন্তোষ ট্রফিতে চাম্পিয়ন হতে না পারলেও রানার্স হয়েছে বাংলা দল। গোটা টুর্নামেন্টে দুরন্ত পারফরম্যান্স করেন দিলীপ ওরাওঁ ও মনোতোষ চাকলাদার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই জানিয়েছিলেন দিলীপ ও মনোতোষকে চাকরি দেওয়া হবে। সেই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করল রাজ্য সরকার। সোমবার রবীন্দ্রসদনের কবি প্রণাম অনুষ্ঠানে তাঁদের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেওয়া হল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে