১২ কার্তিক  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

সমালোচনায় মতবদল! ‘কিষাণ সম্মান নিধি’, ‘আয়ুষ্মান ভারত’ চালুর জন্য কেন্দ্রকে চিঠি মমতার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 22, 2020 5:09 pm|    Updated: September 22, 2020 5:25 pm

An Images

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: লাগাতার সমালোচনা, সুপ্রিম কোর্টের নোটিস পেয়ে মতবদল করল রাজ্য সরকার। দুটি কেন্দ্রীয় প্রকল্প ‘প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি’ (PM Kisan Samman Nidhi Yojona) এবং ‘আয়ুষ্মান ভারত যোজনা’ (Ayushman Bharat Yojona) চালু করার জন্য কেন্দ্রকে চিঠি পাঠিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রকের দায়িত্বপ্রাপ্ত দুই মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর এবং হর্ষ বর্ধন, দুজনকেই তিনি ৯ তারিখ চিঠি দুটি পাঠিয়েছেন।  মঙ্গলবার টুইট করে সেকথা জানাল রাজ্যের প্রশাসনিক দপ্তর।

সংসদে পাশ হওয়া তিনটি কৃষি বিল নিয়ে হাজারও বিতর্ক, বিরোধিতার মাঝেই মঙ্গলবার সকালে মুখ্যমন্ত্রীকে বিঁধে তিনটি টুইট করেছিলেন রাজ্যপাল। ‘প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি’ প্রকল্প বাংলায় চালু না হওয়া নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা করে তিনি অভিযোগ তোলেন যে পশ্চিমবঙ্গের ৭০ লক্ষ কৃষক ৮,৪০০ কোটি টাকার সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। কৃষকরা ১২ হাজার টাকা করে ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পেয়ে যেতেন। কিন্তু রাজ্য প্রশাসন তা চালু না করায় টাকা পাননি৷ তিনি টুইটে আরও দাবি করেছিলেন যে বাংলা ছাড়া অন্যান্য রাজ্যের কৃষকরা কেন্দ্রের ওই প্রকল্প দ্বারা বেশ উপকৃত হয়েছেন। এবার তারই জবাবা দিল রাজ্য প্রশাসনিক দপ্তর। মুখ্যমন্ত্রী যে কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রীকে এই প্রকল্প চালুর জন্য ৯ তারিখই চিঠি পাঠিয়েছেন, তা টুইট করে জানানো হল।

[আরও পড়ুন: স্বচ্ছতায় জোর, হাওড়া-শিয়ালদহ স্টেশনে থুতু ফেললেই জরিমানা ৫০০ টাকা]

একইদিনে মুখ্যমন্ত্রীর আরেকটি চিঠি পৌঁছেছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনের কাছেও। যেখানে ‘আয়ুষ্মান ভারত যোজনা’ বঙ্গে চালু করার আবেদন জানিয়েছেন তিনি। সেই চিঠিটিও টুইট করা হয়েছে। কোভিড পরিস্থিতিতেও যেসব রাজ্য ‘আয়ুষ্মান ভারত যোজনা’ চালু করেনি, বাংলা-সহ সেই ৬ রাজ্যকে চলতি মাসে নোটিস পাঠিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। জানতে চাওয়া হয়েছিল, কেন চালু হয়নি প্রকল্পটি? এই ৬ রাজ্যই বিরোধী শাসিত। শীর্ষ আদালতের নোটিসের পর ৯ তারিখ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে জানান যে প্রকল্পের টাকা হাতে পেলে তিনি চালু করবেন ‘আয়ুষ্মান ভারত যোজনা’।

 

যদিও এ রাজ্যে কেন কেন্দ্রীয় প্রকল্পটি চালু হয়নি, তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে মমতা বাংলার ‘স্বাস্থ্যসাথী’ প্রকল্পের সুবিধার বিস্তারিত তুলে ধরেছেন চিঠিতে। একইভাবে ‘কিষাণ সম্মান নিধি’ প্রকল্পের ক্ষেত্রেও তিনি বাংলার ‘কৃষকবন্ধু’র সুবিধার কথা বিস্তারিত জানিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: করোনা কালে পেসমেকার বসিয়ে ৬৫ জনকে নতুন জীবন দিল কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement