২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  বুধবার ১৭ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

প্রযুক্তির ব্যবহারে অনলাইন পরীক্ষাতেও টোকাটুকিতে বাধা, আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেল রাজ্যের এই বিশ্ববিদ্যালয়

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: June 30, 2022 8:57 pm|    Updated: June 30, 2022 8:57 pm

Maulana Abul Kalam Azad University of Technology gets international e-assessment award | Sangbad Pratidin

দীপঙ্কর মণ্ডল: অনলাইন পরীক্ষা মানেই ধরে নেওয়া হয় বাড়িতে বসে বই দেখে উত্তর লিখেছেন ছাত্রছাত্রীরা। না হলে বাইরে থেকে এসেছে সাহায্য। কিন্তু রাজ্যের মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এমন উপায় আবিষ্কার করেছে, যাতে অনলাইনে পরীক্ষা দিয়েও টোকাটুকি সম্ভব নয়। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) ব্যবহারে সেই উদ্ভাবন ম্যাকাউটকে (MAKAUT) এনে দিল আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি।

চলতি বছরের ই-অ্যাসেসমেন্ট আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছে ম্যাকাউট। ভারত-সহ পৃথিবীর নানা দেশ থেকে যাওয়া ৪৫ টি মনোনয়নের তালিকা থেকে চূড়ান্ত তিনটি মনোনয়নকে বেছে নেন বিশেষজ্ঞরা। তার মধ্যে সেরার পুরস্কার জিতে নেয় রাজ্যের প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। ২১ জুন ফল ঘোষিত হয় লন্ডনে। ‘বেস্ট সামেটিভ অ্যাসেসমেন্ট প্রজেক্ট পুরস্কার ২০২২’ পাওয়ার পর ম্যাকাউটের উপাচার্য অধ্যাপক সৈকত মৈত্র জানিয়েছেন, “আমরা আর্টিফিসিয়াল ইনটেলিজেন্স ব্যবহার করে চূড়ান্ত পরীক্ষা নিয়েছি। বাড়িতে বসে অনলাইনে পরীক্ষা দিলেও কোনও ছাত্রছাত্রী অসৎ উপায় অবলম্বন করতে পারেনি। সেই কারণেই এই পুরস্কার। আমরা গর্বিত। পাশাপাশি আরও বেশি করে প্রযুক্তি নির্ভর পরীক্ষা ব্যবস্থা রূপায়নের অঙ্গীকার করছি। এই পুরস্কার দেশের অন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকেও উৎসাহ দেবে।” 

[আরও পড়ুন: বোর্ড মিটিংয়ের মাঝেই অশান্তি, ভাটপাড়া পুরসভায় হাতাহাতি ২ কাউন্সিলরের, দঃ দমদমে বৈঠক বয়কট]

উল্লেখ্য, চলতি বছরে ১ লক্ষ ৬০ হাজার স্নাতক পড়ুয়া ম্যাকাউট থেকে অনলাইনে ফাইনাল পরীক্ষা দিয়েছে। এই পরীক্ষা ব্যবস্থায় এআই ব্যবহার করে কাউকে টুকলি করতে দেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ইংল্যান্ডে ‘সামেটিভ অ্যাসেসমেন্ট প্রজেক্ট’ বিভাগে ভারত ছাড়াও বিশ্বের বহু দেশের বিশ্ববিদ্যালয় অংশ নেয়। জুরিরা চূড়ান্ত পর্বে বেছে নেন ম্যাকাউটকে (MAKAUT)।

পরীক্ষার পাশাপাশি পঠনপাঠনেও ম্যাকাউটে প্রযুক্তির প্রবেশ ঘটেছে। নতুন আবিষ্কারে কোনও পড়ুয়া যদি পরীক্ষা চালাকালীন বই দেখার চেষ্টা করে বা কেউ বাইরে থেকে সাহায্য করে, তাহলে প্রথমে সচেতন করা হবে। না শোধরালে আপনাআপনি প্রশ্ন-উত্তর স্ক্রিন থেকে মুছে যাবে। ম্যাকাউটের পরীক্ষা নিয়ামক শুভাশিস দত্ত বলেন, “অতিমারির আগেই মূল্যায়ন ব্যবস্থায় প্রযুক্তির প্রয়োগ আমরা করেছিলাম। পরবর্তী কালে আরও নতুন পদ্ধতির উদ্ভাবন করা হয়েছে। আগামিদিনে এই ব্যবস্থায় আরও উদ্ভাবন আনার চেষ্টা চলবে।” আমেরিকা, ইউরোপ-সহ আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে ম্যাকাউটের নয়া ব্যবস্থা স্বীকৃতি লাভ করেছে।

[আরও পড়ুন: মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ শিণ্ডের, কোন অঙ্কে মসনদে ‘বিদ্রোহী’ শিব সেনা নেতা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে