BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

অচলাবস্থা কাটাতে জরুরি বৈঠক পুরসভায়, পরবর্তী মেয়র নিয়ে জল্পনা

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: November 21, 2018 1:07 pm|    Updated: November 21, 2018 5:42 pm

Meet after Sovan Chatterjee resigns

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে রাজ্য মন্ত্রিসভা থেকে মঙ্গলবার ইস্তফা দিয়েছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ মেয়র পদ থেকে আজই সম্ভবত পদত্যাগ করতে পারেন তিনি৷ শোভনবাবুর পদত্যাগের পর কীভাবে চলবে পুরসভার প্রশাসনিক কাজকর্ম? শোভনের ফেলে যাওয়া পদে নতুন মেয়র কে হবেন? তা নিয়ে পুর প্রশাসন ও তৃণমূলের অন্তরে শুরু হয়েছে জল্পনা৷  

[নিউটাউনে চলন্ত অটোয় তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা, গ্রেপ্তার চালক]

বুধবার রাজ্য সরকারি দপ্তরে ছুটি থাকলেও ডামাডোল পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে জরুরি বৈঠকে বসেন পুরকর্তারা৷ পুর কমিশনার খলিল আহমেদের নেতৃত্বে পুরভবনে চলেছে রুদ্ধদ্বার বৈঠক৷ পুর কমিশনার খলিল আহমেদ-সহ বেশ কিছু আধিকারিকের ঘাড়ে পুরসভা পরিচালনার দায়িত্ব দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে পুরসভা পরিচালনার দায়িত্বভার বুঝে নিতে চলছে তৎপরতা৷ পরবর্তী মেয়র নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত নাগরিক পরিষেবা পৌঁছে দিতে যাতে কোনও সমস্যা না হয় অথবা প্রশাসনিক কাজে কোনও ত্রুটি না থাকে, সেদিকে লক্ষ্য রেখে পুরসভার সমস্ত দপ্তরের ডিজি ও পুর আধিকারিকদের ডেকে বৈঠকে বসেছেন পুর কমিশনার খলিল আহমেদ৷ 

[‘রেড মিরচি’র পর এবার রেলে ‘অরেঞ্জ’ আতঙ্ক]

মেয়র পদে ইস্তফা দেওয়ার প্রসঙ্গে মঙ্গলবার নবান্ন থেকে বেরনোর পথে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “মেয়রের পদ ছাড়তে বলা হয়েছে। কাল (আজ বুধবার) ছুটি আছে সরকারি দপ্তরে। মেয়র নির্বাচনের কিছু আইনকানুন আছে। আমরা দেখছি। পুরসভার কাজ এই এক-দু’দিন পুর কমিশনার খলিল আহমেদ-সহ বাকিরা দেখে নেবেন।”

২০১০ সালে কলকাতা পুরসভায় নির্বাচনে বামফ্রন্টকে পরাজিত করে ক্ষমতায় আসে তৃণমূল কংগ্রেস। তখন কলকাতার মেয়রের গুরুদায়িত্ব শোভনের হাতে তুলে দেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০১৫ সালে আবার ভোটে জেতে তৃণমূল কংগ্রেস। মেয়র পদে থাকেন শোভনই। প্রথমবার খুবই অল্পবয়সে কলকাতা পুরসভার কাউন্সিলর হন শোভন। লাগাতার ভোটে জিতেছেন তিনি। এখন ১৩১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। সম্প্রতি, ব্যক্তিগত কারণেই নিজের পদ থেকে সরে দাঁড়াতে চেয়েছিলেন তিনি। গতকাল মুখ্যমন্ত্রীই জানান শোভন এর আগে চার-পাঁচবার পদত্যাগের ইচ্ছাপ্রকাশ করেছিলেন।

[শহরে ফাঁস বেআইনি গ্যাস ‘রিফিলিং সেন্টার’, গ্রেপ্তার চক্রের পাণ্ডা]

শোভন সরার পর নতুন মেয়র কে হবে? এ নিয়ে তৃণমূলের অন্দরে শুরু হয়ে গিয়েছে জল্পনা। একাধিক নাম সামনে আসছে। মূলত দেবাশিস কুমার, মালা রায়, অতীন ঘোষের নাম উঠে আসছে৷ কিন্তু দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কলকাতা পুর এলাকা তিনি হাতের তালুর মতো চেনেন। অতএব, শোভনবাবুর পদে কে যোগ্য তা তিনিই সবচেয়ে ভাল জানেন। সঠিক লোককেই তিনি দায়িত্ব দেবেন।  মুখ্যমন্ত্রী তাঁর বক্তব্য যা ইঙ্গিত দিয়েছেন, তাতে স্পষ্ট নাটকীয় কোনও পট পরিবর্তন না হলে এ সপ্তাহেই নতুন মেয়র শপথ নেবেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে