২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মঙ্গলের পর বুধবারও সকাল থেকেই মুখভার আকাশের৷ প্রায় অনবরতই বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিতে ভিজছে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলা৷ ভারী বৃষ্টি চলছে উত্তরবঙ্গেও৷ হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, পশ্চিমবঙ্গ এবং ওড়িশা উপকূলের কাছে অবস্থান করছে একটি নিম্নচাপ। ধীরে ধীরে সেটি উত্তর-পশ্চিম দিকে সরে যাচ্ছে৷ তবে দিনভর হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি চলবে বলেই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর৷

[আরও পড়ুন: সূত্র সিসিটিভি ফুটেজ, টালিগঞ্জ থানায় ঢুকে হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তার মূল অভিযুক্ত-সহ ২]

বর্ষার বৃষ্টির ঘাটতি রয়েছে৷ তাই রাজ্যে বৃষ্টির একমাত্র ভরসা নিম্নচাপ৷ গত সোমবার রাত থেকে তার জেরে বৃষ্টিতে ভিজছে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলি৷ বুধবার সকালের পরিস্থিতিও প্রায় একইরকম৷ দফায় দফায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিতে ভিজছে রাজ্যের বিভিন্ন এলাকা৷ উপকূল জেলাগুলিতে চলছে ভারী বৃষ্টি৷ হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, পশ্চিমবঙ্গ এবং ওড়িশা উপকূলের কাছে অবস্থান করছে একটি নিম্নচাপ। ধীরে ধীরে সেটি উত্তর-পশ্চিম দিকে সরে যাচ্ছে৷ তবে দিনভর হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি চলবে বলেই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর৷ শুক্রবার থেকে আবারও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা শুনিয়েছেন আবহবিদরা৷

[আরও পড়ুন: ভোল বদলেছে কলকাতার জঙ্গি নেতা আমির, নাশকতার আশঙ্কায় উদ্বিগ্ন গোয়েন্দারা]

রাতভর বৃষ্টিতে জলমগ্ন দক্ষিণ ও মধ্য কলকাতার বিভিন্ন এলাকা। প্রায় জলের তলায় চলে গিয়েছে খিদিরপুরের কার্ল মার্কস সরণি, আলিপুরের বডিগার্ড লাইন এবং বেহালা, সখের বাজার, শীলপাড়া। জল জমেছে কলেজ স্ট্রিট, সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ, মহাত্মা গান্ধী রোড, ঠনঠনিয়া, আমহার্স্ট স্ট্রিট, মুক্তারাম বাবু স্ট্রিট এবং বড়বাজার এলাকায় নিচু জায়গায় জল জমেছে। কোথাও গোড়ালি পর্যন্ত আবার কোথাও হাঁটু পর্যন্ত জল জমে যাওয়ায় ভোগান্তির শিকার স্থানীয় বাসিন্দারা৷ জল জমে যাওয়ার ফলে শহরের একাধিক রাস্তায় যানজট তৈরি হয়েছে৷ যানবাহনের গতিও যথেষ্ট স্লথ৷ জল সরিয়ে তড়িঘড়ি পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা চালাচ্ছেন পুরসভার কর্মীরা৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং