১ আষাঢ়  ১৪২৬  রবিবার ১৬ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: জুনিয়র ডাক্তারদের যখন কর্মবিরতি প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়েছে রাজ্য সরকার, তখন আন্দোলনকারীদেরই সমর্থন করলেন খোদ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের মেয়ে সাব্বা। ফেসবুক পোস্টে সরকারের ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি।

[ আরও পড়ুন: জুনিয়র ডাক্তারদের দাবি নিয়ে কাটল না জট, আজও স্তব্ধ এনআরএস]

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অত্যন্ত আস্থাভাজন ফিরহাদ হাকিম। জন্মলগ্ন থেকে তৃণমূল কংগ্রেসে রয়েছেন তিনি। পুর ও নগরোয়ন্নমন্ত্রীই শুধু নন, ফিরহাদ হাকিম কলকাতা পুরসভার মেয়রও। তাঁর মেয়ে সাব্বা পেশায় চিকিৎসক। যাদবপুরের একটি বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ থেকে ডাক্তারি পাশ করেছেন তিনি। ফেসবুকে সাব্বা হাকিম লিখেছেন, ‘সরকারি ও বেশিরভাগ বেসরকারি হাসপাতালে আউটডোর বয়কট করেছে ডাক্তাররা। জরুরি বিভাগে কিন্তু কাজ হচ্ছে। মানবিকতার খাতিরেই অন্য পেশাদারের মতো আমরা কাজ বন্ধ করে দিতে পারি না। আর যাঁরা বলছেন, ‘অন্য রোগীদের কী দোষ?’, তাঁরা সরকারের কাছে জানতে চান, যেসব পুলিশকর্মী সরকারি হাসপাতালে মোতায়েন থাকেন, তাঁরা কেন ডাক্তারদের নিরাপত্তা দিতে পারলেন না? যখন হাসপাতালে দুটি ট্রাকে চড়ে দুষ্কৃতীরা ঢুকল, তখন বাড়তি পুলিশ কেন পাঠানো হল না? কেন হাসপাতাল চত্বরে এখনও গুন্ডারা ঘুরে বেড়াচ্ছে আর ডাক্তারদের মারছে?’  পোস্টে নিচে  #proudtobeadoctor, #standwithNRS হ্যাশট্যাকও দিয়েছেন মন্ত্রীকন্যা।

এনআরএস কাণ্ডে জট কাটাতে বুধবার স্বাস্থ্যভবনে দপ্তরের কর্তাদের উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেন স্বাস্থ্যসচিব রাজীব সিনহা। বৈঠকের পর লিখিত বিবৃতি দিয়ে জুনিয়র ডাক্তারদের কর্মবিরতি প্রত্যাহারের অনুরোধ করেন তিনি। তবে এখনও নিজেদের অবস্থানেই অনড় আন্দোলনকারীরা। বৃহস্পতিবারই যথারীতি রাজ্যের সরকারি হাসপাতালে ও বেশিরভাগ নার্সিংহোমে চলছে জুনিয়র ডাক্তারদের কর্মবিরতি। ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন জুনিয়র ডাক্তাররা।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং