BREAKING NEWS

৮ বৈশাখ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২২ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নবীন-প্রবীণ মিলিয়ে আজ প্রার্থীতালিকা প্রকাশ তৃণমূলের, থাকছে বহু চমক

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 5, 2021 9:56 am|    Updated: March 5, 2021 10:04 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: নতুন-পুরনো ভারসাম্য রেখেই আজ তৃণমূলের (TMC) প্রার্থীতালিকা। সঙ্গে চমক। দেখা যেতে পারে বিশিষ্ট আমলাদেরও। যা খবর তাতে সিনিয়র নেতা-মন্ত্রীরা প্রত্যেকেই টিকিট পাচ্ছেন। এবং অধিকাংশই তাঁরা তাঁদের পুরনো কেন্দ্রেই দাঁড়াবেন।

তৃণমূলের প্রার্থীতালিকা নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই কৌতূহল রয়েছে সব মহলে। নতুন মুখ, নানা সমাজের তৃণমূল স্তরের মানুষ, ছাত্রছাত্রীদের প্রতিনিধিত্ব নিয়ে কয়েকদিন ধরেই আলোচনা চলেছে। নতুনদের মধ্যে এবার কলকাতায় উল্লেখযোগ্য নাম হচ্ছে সদ্য প্রাক্তন ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ, এবং মেয়র পারিষদ দেবাশিস কুমারের। রয়েছেন সদ্য অবসর নেওয়া আমলা হুমায়ুন কবীর। তাৎপর্যপূর্ণভাবে উঠে এসেছে স‌দ‌্য অবসর নেওয়া মুখ‌্যসচিব রাজীব সিনহার নাম। তিনি তৃণমূলে যোগ দিয়ে প্রার্থী হতে পারেন বলে জল্পনা। আরও কয়েকজন প্রাক্তন আমলা তালিকায় থাকতে পারেন। তা ছাড়া ভোটের মুখে একঝাঁক টলিউডের মুখ তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সেই চমকপ্রদ যোগদানের তালিকায় ছিলেন বিশিষ্ট সংগীতশিল্পী অদিতি মুন্সি। প্রার্থী হিসাবে তাঁর নামও চর্চায় রয়েছে। তবে শেষপর্যন্ত কে কে টিকিট পান সেদিকে স্বাভাবিকভাবেই নজর থাকবে।

[আরও পড়ুন: নন্দীগ্রামে মমতার বিরুদ্ধে শুভেন্দুতেই সিলমোহর বিজেপির, ভবানীপুরে লড়তে পারেন বাবুল]

তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) ইতিমধ্যেই তালিকা প্রস্তুত করে ফেলেছেন। একেবারে শেষ মুহূর্তে চোখ বুলিয়ে নেওয়ার পালা। আজ, শুক্রবার দুপুরে মমতার কালীঘাটের অফিসে বৈঠকে বসছে দলের ১২ সদস্যের নির্বাচন কমিটি। আলোচনা সেরে সম্ভবত দুপুরেই ২৯৪ কেন্দ্রের জন‌্য প্রার্থীর নাম ঘোষণা। পাহাড়ের তিনটি আসন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার জন‌্য ছেড়ে রাখা হতে পারে। তালিকা প্রকাশ করে শনিবার মমতা চলে যাবেন উত্তরবঙ্গে। সেখানে পদযাত্রার পর আবার আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে কলকাতায় মিছিল। তার পর দিন দলীয় ইস্তেহার প্রকাশের কথা রয়েছে। প্রার্থীতালিকায় বেশ কিছু বিধায়ক এবার বাদ পড়ছেন। প্রথমেই তৃণমূলনেত্রীর নির্দেশ ছিল, একেবারে বয়স্ক যাঁরা, আশির উপর যাঁদের বয়স, তাঁদের এবার টিকিট দেওয়া হবে না। এর বাইরে এলাকায় জনসংযোগ হারানো বেশ কিছু বিধায়ক বাদ পড়বেন। তাঁদের সঙ্গে কথাও বলে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে বাঁকুড়ার বিধায়ক সমীর চক্রবর্তী নিজে থেকেই সরে দাঁড়ানোর কথা জানিয়েছেন। বলেছেন দলের হয়ে প্রচারে থাকবেন। তাঁর বক্তব্য, সবাই যদি প্রার্থী হয়ে যায়, তা হলে প্রচার করবে কে? বিজেপি সারা দেশের নেতাদের এনে প্রচার করছে। একা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কত টানবেন? প্রচারের ভার আমাদের কারও কারও কাঁধেও আসা উচিত। স্বেচ্ছায় সেই দায়িত্ব নিতে চাই।

মমতা তাঁর তালিকার বিষয় নিয়ে কিছুই প্রকাশ করেননি। দলের অন্য নেতৃত্বের তরফেও মুখে কুলুপ। ফলে তৃণমূলনেত্রীর তালিকায় কী চমক রয়েছে, কীভাবে তিনি প্রার্থী দিচ্ছেন, সেদিকে তাকিয়ে সকলে। নজর রয়েছে বিজেপিরও। তাদের সর্বভারতীয় নেতৃত্বের কাছে ইতিমধ্যে তালিকা পৌঁছে গিয়েছে। কিন্তু তারা কিছু চূড়ান্ত করেনি। তাদের তালিকা বৃহস্পতিবারই বেরিয়ে যেত। কিন্তু শেষমুহূর্তে অপেক্ষা করে আছে মমতার তালিকার জন্য। তার পালটা কিছু একটা চমকের প্রস্তুতি রাখবে বিজেপি।

[আরও পড়ুন: কারখানা ওহি বনায়েঙ্গে, মন্ত্রিসভার বৈঠক সিঙ্গুরে! ইস্তেহারে চমক দিতে চলেছে বামেরা]

অন্যদিকে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রাম (Nandigram) আসনেই লড়ছেন। সেখানে দাঁড়িয়েই এ কথা তিনি ঘোষণা করেছিলেন। ফলে তারও প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে। এবং দল নিশ্চিত যে, যিনিই বিজেপির প্রার্থী হোন, নন্দীগ্রামের মানুষের বড় সমর্থন নিয়েই তিনি আবার বিজয়ী হবেন। গোটা রাজ্য ইতিমধ্যে ‘বাংলা নিজের মেয়েকে চায়’ হোর্ডিংয়ে ভরে গিয়েছে। পোস্টারও পড়ছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) ৭ তারিখের ব্রিগেডে শহরজুড়ে থাকছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেই ছবি ও পোস্টার। সেটা মোদি শহরে পা রেখেই বুঝতে পারবেন। তৃণমূলনেত্রীর পোস্টার-হোর্ডিংয়ে শহর ছেয়ে দেওয়ার নির্দেশ এদিনই দলীয় বৈঠকে দিয়েছে নেতৃত্ব। এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার এদিন ফের মমতাকে ফোন করে সমর্থন জানিয়েছেন। কংগ্রেস বিপরীত অবস্থান নেওয়ায় আক্ষেপও করেন। এদিনই শিব সেনার সঞ্জয় রাউত তৃণমূলকে সমর্থনের কথা জানিয়েছে। টুইট তিনি বলেন, এ রাজ্যে তারা কোনও প্রার্থী দিচ্ছেন না। লড়াইয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশেই থাকবেন। রাজ্যে প্রচারে আসার কথা জানিয়েছে দুই দল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement