BREAKING NEWS

১৪ শ্রাবণ  ১৪২৮  শনিবার ৩১ জুলাই ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Newtown Encounter: নিউটাউন এনকাউন্টার: মোহালি থেকে গ্রেপ্তার 'আসল' সুমিত কুমার, রহস্য বাড়ছে আরও

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 12, 2021 1:45 pm|    Updated: June 12, 2021 3:09 pm

New Town encounter: Sumit Kumar arrested from Mohali

কলহার মুখোপাধ্যায়, বিধাননগর: নিউটাউন এনকাউন্টার (Newtown Encounter) কাণ্ডে ফের নয়া মোড়। এতদিন জানা গিয়েছিল, ‘সুখবৃষ্টি’ আবাসনে ভাড়া নেওয়া ভরত কুমারই আসলে সুমিত কুমার। এই নামে নিজের সমস্ত তথ্য, পরিচয়পত্র দিয়েই সে ভাড়ার চুক্তিপত্র বানিয়েছিল। বুধবার, নিউটাউন এনকাউন্টারের দিন দুপুরে মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিওর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এবার তার থেকে পাওয়া নথি পরীক্ষা করে তদন্তকারীরা জানতে পেরেছেন, সত্যিই সুমিত কুমার নামে এক ব্যক্তি রয়েছেন। যাঁর নথি ব্যবহার করেই ভরত যাবতীয় কুকীর্তি চালিয়েছিল। হরিয়ানার মোহালি (Mohali) থেকে সুমিতকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নিউটাউন কাণ্ডে পুলিশের জালে এল আরেক সন্দেহভাজন।

বুধবার দুপুরে ভরত কুমারের গ্রেপ্তারি এবং তার ঠিক পরপরই নিউটাউনের ‘সুখবৃষ্টি’ আবাসনে রাজ্য পুলিশের এসটিএফের (STF) এনকাউন্টার। নিহত কুখ্যাত দুই গ্যাংস্টার – জয়পাল, জসপ্রীত। সেই ঘটনার তদন্ত চলাকালীনই সামনে আসতে থাকে নতুন নতুন তথ্য। যার মধ্যে অন্যতম উল্লেখযোগ্য ভরত কুমার নামের ব্যক্তি সুমিত কুমারের পরিচয়পত্র দিয়ে নিউটাউনের ওই অভিজাত এলাকায় ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে আশ্রয় দিয়েছিলেন জসপ্রীতদের। কিন্তু শনিবার সেই ঘটনায় আবার টুইস্ট।

[আরও পড়ুন: বান্ধবীর সঙ্গে মনোমালিন্যর জের, এক ঘুষিতে বন্ধুকে খুন করল কিশোর]

গোয়ালিওর থেকে ধৃত ভরতের কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া কাগজপত্রের সূত্র ধরে তল্লাশি চালাতে গিয়ে তদন্তকারীরা পৌঁছে যান হরিয়ানার মোহালি। সেখানেই দেখা যায়, সুমিত কুমার নামে এক ব্যক্তি রয়েছেন। তাঁর সমস্ত পরিচয়পত্র দিয়েই কলকাতায় এসে ভাড়ার চুক্তিপত্র বানিয়েছিল ভরত কুমার। সুমিত কুমারকে গ্রেপ্তার করেছে পাঞ্জাব পুলিশের একটি দল। এখন প্রশ্ন উঠছে, সুমিতের ব্যক্তিগত পরিচয়পত্র কীভাবে ভরতের কাছে গেল? উত্তরে সুমিত জানিয়েছেন, কেউ তাঁর থেকে আধার কার্ড ও পাসপোর্টের নথি চেয়েছিল। তিনি তা দিয়েছেন। কিন্তু কী কারণে তা চাওয়া হয়েছিল, কাকেই বা ভরসা করে তিনি এসব দিয়েছিলেন, তার কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি সুমিত কুমার। আর তাতেই রহস্য বাড়ল আরও। তবে কি মোহালির সুমিতও এই চক্রের সঙ্গেই জড়িত? নাকি তিনি স্রেফ দাবার মতো এই বিশাল জটিল চক্রের বোড়ে?

[আরও পড়ুন: হাওড়ার অসুস্থ ও বাইরে বেরতে অক্ষম বাসিন্দাদের বাড়ি গিয়েই টিকাকরণ, তৈরি হচ্ছে তালিকা]

এদিকে, নিউটাউনের সুখবৃষ্টি আবাসনের ওই অভিশপ্ত ফ্ল্যাট থেকে তৃতীয় এক ব্যক্তির ফিঙ্গারপ্রিন্ট মিলেছে বলে খবর তদন্তকারী সূত্রে। তিনি কে, তা জানার চেষ্টা চলছে। নিহত দুই গ্যাংস্টার জয়পাল ও জসপ্রীতের  দেহ আজই থানা থেকে ছাড়া হয়েছে। তা নিয়ে দুপুরের বিমানে পাঞ্জাবের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement