BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

চিকিৎসকদের দাবিকে মান্যতা, বৈঠকে যোগদানের আমন্ত্রণ পেলেন আন্দোলনকারীরা

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: June 17, 2019 11:58 am|    Updated: June 17, 2019 1:03 pm

Not received invitation to join meeting, claims Junior doctor

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বাস্থ্যে অচলাবস্থা কবে কাটবে! নবান্নে জুনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠক নিয়ে নয়া জটিলতা। আন্দোলনকারীদের দাবি, সংবাদমাধ্যম থেকে বৈঠকের কথা তাঁরা জেনেছেন। কিন্তু সরকারিভাবে এখনও পর্যন্ত কোনও আমন্ত্রণপত্র পাননি। জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা চলছে। বস্তুত, বন্ধ ঘরে নয়, সংবাদমাধ্যমের উপস্থিতিতে বৈঠকের দাবিতেও অনড় জুনিয়র ডাক্তাররা। এদিকে এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই নড়চড়ে বসে প্রশাসন। তড়িঘড়ি বৈঠকে যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয় ডাক্তারদের।

[আরও পড়ুন: ‘চামচা দিয়ে আন্দোলন ভাঙার চেষ্টা করছেন মমতা’, ‘প্যাঁদানি’ দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিলীপের]

এক সপ্তাহ হয়ে গেল। কিন্তু, এনআরএস কাণ্ডে অচলাবস্থা কাটার কোনও লক্ষণই নেই। বরং জুনিয়র ডাক্তারদের নিত্য নতুন শর্তে জটিলতা আরও বাড়ছে। খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিন্তু বারবার আন্দোলনকারীদের আলোচনায় বসার বার্তা দিচ্ছেন। সমস্যা মেটাতে শুক্রবার ৬ জন প্রবীণ চিকিৎসককে নবান্নে ডেকে পাঠিয়েছিলেন তিনি। বৈঠকের মাঝপথে ডেকে পাঠানো হয় আন্দোলনকারী ডাক্তারদেরও। কিন্তু বৈঠকে যোগ দিতে অস্বীকার করেন তাঁরা। ঠিক হয়, পরের দিন অর্থাৎ শনিবার ফের বৈঠক হবে। কিন্তু ডাক্তারদের অনড় মনোভাবের কারণে শেষপর্যন্ত সেই বৈঠকও ভেস্তে যায়। রাজ্যের মুখ্যসচিব মলয় দে-কে প্রবীণ চিকিৎসকরা জানিয়ে দেন, জুনিয়র ডাক্তারদের আলোচনার টেবিলে আনতে পারেননি। মধ্যস্থতাকারী হিসেবে তাঁরা ব্যর্থ। এখন যা করার সরকারকেই করতে হবে।

এই পরিস্থিতিতে কার্যত সব শর্ত মেনে নিয়েই আন্দোলনকারীদের নবান্নে ফের বৈঠকে ডাকেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার দুপুর তিনটের সময় বৈঠক হওয়ার কথা। স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে খবর, বৈঠকে রাজ্যের ১৪টি মেডিক্যাল কলেজের দু’জন করে প্রতিনিধি হাজির থাকবেন। বৈঠকে যোগ দেবেন রাজ্যের মুখ্যসচিব ও স্বাস্থ্য সচিবও। কিন্তু সেই বৈঠক ঘিরে জটিলতা তৈরি হল। সোমবার সকালে জিবি বৈঠক করেন আন্দোলনকারী জুনিয়র ডাক্তাররা। বৈঠকের পর জানানো হয়, সোমবার নবান্নে বৈঠকে যোগ দেওয়ার জন্য সরকারিভাবে এখনও পর্যন্ত কোনও আমন্ত্রণ আসেনি। সরকার যদি আমন্ত্রণ জানায়, তাহলে আলোচনায় রাজি জুনিয়র ডাক্তাররা। তবে বন্ধ ঘরে নয়, আলোচনা করতে হবে সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরার সামনে। কারণ বৈঠকে কী আলোচনা হল, তা জানার অধিকার আছে সাধারণ মানুষেরও।  শেষপর্যন্ত অবশ্য সোমবার সকালেই আন্দোলনকারীদের সরকারিভাবে বৈঠকে যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয়েছে বলে খবর।

[আরও পড়ুন: গরম উপেক্ষা করে মহৎ প্রয়াস, নয়া রেকর্ড গড়ল ‘মায়ের জন্য রক্তদান’ কর্মসূচি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে