১ আশ্বিন  ১৪২৫  মঙ্গলবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮  |  পুজোর বাকি আর ২৮ দিন

মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও রাশিয়ায় মহারণ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্কঃ রাজ্য সরকারের অধীনে থাকা বাসের ডিপোগুলিতে এবার কি বেসরকারি বাস রাখারও অনুমতি মিলবে? সম্প্রতি কলকাতার গড়িয়ার ৬ নম্বর সরকারি বাস ডিপোর একটি ঘটনা তুলে দিয়েছে এই প্রশ্ন। দিন কয়েক ধরে এই বাস ডিপোতেই সরকারি বাসের পাশাপাশি রাখতে দেওয়া হচ্ছে বেসরকারি বাস। ফলে অনেকটাই কমছে রাস্তার পাশে বেসরকারি বাস দাঁড় করিয়ে রাখার প্রবণতা। যার ফলে সুবিধা হচ্ছে রাস্তায় যান চলাচলে।

[পঞ্চায়েত ভোট ২০১৮ LIVE: দিকে দিকে বিক্ষিপ্ত অশান্তি, মন্ত্রীর চড় ঘিরে শোরগোল]

শহর কলকাতায় যাতায়াতের অন্যতম প্রধান উপকরণ বাস। সরকারি বাসের থেকেও বেশি বেসকারি বাস সারাদিন দাপিয়ে বেড়ায় কলকাতার রাস্তায়। কেবল চলাচলের সময়ই দাপাদাপি করে ক্ষান্ত থাকে না বেসরকারি বাসগুলি, কোনও নির্দিষ্ট স্ট্যান্ড না থাকায় শহরের রাস্তা জুড়ে দাঁড় করিয়ে রাখা হয় বাসগুলিকে। ফলে ক্রমশই ছোট হতে শুরু করেছে শহরের যান চলাচলের পরিসর। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে বাহনের সংখ্যা। পরিসংখ্যান বলছে, দেশের অন্যান্য শহরের তুলনায় ছয় শতাংশ যান চলাচলের পরিসর কম রয়েছে কলকাতায়। গড়িয়ার ৬ নম্বর সরকারি বাস ডিপোর এই উদ্যোগ পরিবহন দপ্তরকে নয়া দিশা দিয়েছে বলে জানিয়েছেন ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের(ডব্লুবিটিসি) এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক। তিনি আরও জানান, সরকারি বাস ও বেসরকারি বাস, এগুলি সবই মুখের কথা। সাধারণ মানুষের কাছে এই সবের কোনও অর্থই নেই। ফলে রাজ্য সরকারের পথদিশা প্রকল্পের আওতায় সমস্ত বাসকে এনে সময়ভিত্তিক রুট ভাগ প্রক্রিয়া শুরু করলে অনেক বেশি সুবিধা পাবেন সাধারণ মানুষ।

[কোচবিহারে বিজেপি এজেন্টকে চড় মারার অভিযোগ মন্ত্রীর বিরুদ্ধে, রিপোর্ট তলব কমিশনের]

এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাচ্ছেন রাজ্য পরিবহন দপ্তরের একটি অংশ। ওই অংশের মতে, এই পদ্ধতিতে বাস পরিষেবা শুরু করলে সরকারি ও বেসরকারি বাসের ব্যবসাও যেমন লাভের মুখ দেখবে। তেমনই এর সুবিধা ভোগ করবেন যাত্রীরা। গড়িয়ার ৬ নম্বর সরকারি বাস ডিপোর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন জয়েন্ট কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেটের তপন বন্দ্যোপাধ্যায়। সরকারি বাস ডিপো ব্যবহারের সুযোগ সরকার দিলে তাঁরা পার্কিং ফি দিতেও রাজি বলে জানিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং