২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ১৬ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মল্লিকবাজারের নার্সিংহোমের ৮ তলার কার্নিশে রোগী, নামানোর চেষ্টায় তৎপর দমকল

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 25, 2022 12:08 pm|    Updated: June 25, 2022 2:02 pm

Patients climb on parapet of Institute of Neurosciences Kolkata, threatens to jump । Sangbad Pratidin

অর্ণব আইচ: খাস কলকাতার বেসরকারি হাসপাতালে বিপত্তি। মল্লিকবাজারের ইনস্টিটিউট অফ নিউরোসায়েন্সে কলকাতার (Institute Of Neurosciences Kolkata) আটতলার কার্নিশে উঠে পড়লেন রোগী। যাতে কোনও বিপদ না ঘটে, সে বিষয়ে তৎপর বেসরকারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে দমকল। হাইড্রোলিক ল্যাডারের সাহায্যে ওই রোগীকে নিচে নামিয়ে আনার চেষ্টা করছেন দমকল কর্মীরা।

বেশ কয়েকদিন ধরে ওই বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি ছিলেন যুবক। শনিবার সকালে আটতলার জানলা দিয়ে কার্নিশে চলে যান তিনি। নজরে পড়ে বেসরকারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। দেখা যায় কখনও কার্নিশে উঠে দাঁড়িয়ে রয়েছেন ওই যুবক। আবার কখনও পা ঝুলিয়ে বসে পড়ছেন। মুহূর্তের মধ্যেই আবার ভঙ্গিমা বদল করে হাঁটু ভাঁজ করেও বসতে দেখা যায় কার্নিশে। হাত উঁচিয়ে কথাবার্তা বলার চেষ্টা করতেও দেখা যায় তাঁকে। রোগীকে বোঝানোর চেষ্টা করেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তবে তিনি নামতে রাজি হননি।

Patient

[আরও পড়ুন: ‘১৯ বছর মুখ বুজে মিথ্যাচার সহ্য করেছেন মোদি’, গুজরাট দাঙ্গায় সুপ্রিম স্বস্তিতে মন্তব্য শাহর]

বাধ্য হয়ে দমকলে খবর দেওয়া হয়। তড়িঘড়ি হাইড্রোলিক ল্যাডার-সহ দমকল কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছন। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় ওই যুবককে নিচে নামানোর চেষ্টা শুরু হয়। আটতলার কার্নিশ থেকে নিচে পড়ে গেলে বড়সড় বিপদ হতে পারে। ঘটতে পারে প্রাণহানিও। নিচে পড়ে যাতে কোনও বিপদ না হয়, তাই আগাম সতর্কতামূলক পদক্ষেপও নেওয়া হয়েছে। হাইড্রোলিক ল্যাডার ওই রোগীর কাছাকাছি পৌঁছনোমাত্র আত্মহত্যার হুমকি দেন বলেই খবর। আপাতত বিপজ্জনক অবস্থায় কার্নিশেই বসে রয়েছেন তিনি।

এদিকে, ইনস্টিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সের এই ঘটনার জেরে মল্লিকবাজার মোড়ে প্রচুর মানুষ ভিড় জমিয়েছেন। তার ফলে রাস্তায় তীব্র যানজট। ব্যস্ত সময়ে ওই জায়গা দিয়ে কিছুটা হলেও ধীর গতিতে চলছে যান চলাচল। রাস্তায় যানচলাচল স্বাভাবিক রাখার চেষ্টায় তৎপর পুলিশকর্মীরা। রোগী কার্নিশ থেকে নেমে না আসা পর্যন্ত পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়া কার্যত অসম্ভব বলেই মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: নিত্যযাত্রীদের জন্য সুখবর, কর্মব্যস্ত দিনে বাড়ছে মেট্রোর সংখ্যা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে