৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ফ্ল্যাটের কর এবার কার্পেট এরিয়ায়

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 17, 2016 11:13 am|    Updated: June 17, 2016 11:13 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: শহরের নাগরিকদের সম্পত্তি কর আদায়ে দু’টি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে কলকাতা পুরসভা৷ ফ্ল্যাটের বাসিন্দাদের জন্য যেমন সুপার বিল্ট আপ এরিয়ার বদলে কার্পেট বিল্ট আপ এরিয়াই বিবেচ্য হবে, তেমনই কর ব্যবস্থার সরলীকরণে বহু অপেক্ষার পর অক্টোবর থেকে চালু হচ্ছে ইউনিট এরিয়া সিস্টেম৷
কলকাতার আবাসনের বাসিন্দাদের এবার থেকে শুধুমাত্র কার্পেট বিল্ট আপ এরিয়ার উপর সম্পত্তি কর জমা দিতে হবে৷ আগে সুপারবিল্ট এরিয়ার উপর এই কর জমা দিতে হত৷ সুপারবিল্টের তুলনায় কার্পেট এরিয়া মোটামুটিভাবে ২৫-৩০ শতাংশ কম৷ আবাসনের বাসিন্দাদের প্রোমোটারের দেওয়া তথ্যের উপরই নির্ভর করতে হত৷ প্রোমোটার সিঁড়ি বা ফাঁকা জায়গার ভিত্তিতেই সেই এরিয়া চিহ্নিত করতেন৷ কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন আইনে বিজ্ঞাপনের সময়ও প্রোমোটারকে কার্পেট বিল্ট আপ এরিয়ারই উল্লেখ করতে হবে৷ এছাড়া কোনও প্রকল্পের প্ল্যান অনুমোদিত না হলে বিক্রির জন্য বিজ্ঞাপনও দেওয়া যাবে না বলে ওই আইনে উল্লেখ রয়েছে৷ এদিকে, বৃহস্পতিবার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ফ্ল্যাটের বাসিন্দাদের অনাবশ্যক বেশি কর গুনতে হত৷ আবাসনের ক্ষেত্রে কর-সংস্কারের জন্য মেয়র পারিষদদের বৈঠকে খুব শীঘ্র সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে৷ শোভন চট্টোপাধ্যায় মেয়র হওয়ার পর এ ব্যাপারে উদ্যোগ নিয়েছিলেন৷ পাশাপাশি বিলাবহুল আবাসনের ক্ষেত্রে সুইমিং পুল, জিম বা এসি ব্যাঙ্কোয়েট হল থাকলে সেগুলির নির্দিষ্ট কর ধরা হবে৷ পরে সেই সবের কর বাসিন্দাদের মধ্যে আনুপাতিকহারে ভাগ করা হবে৷ মেয়র পারিষদদের বৈঠকের পর মাসিক অধিবেশনে সিদ্ধান্ত গৃহীত হবে৷
শহরের বাসিন্দাদের কর-সংস্কারের ক্ষেত্রে এলাকাভিত্তিক কর চালুর সিদ্ধান্তও এবার কার্যকর হতে চলেছে৷ মেয়র জানিয়েছেন, আগামী অক্টোবর মাস থেকে ইউনিট এরিয়া সিস্টেম চালু হবে৷ তবে সেটি বাধ্যতামূলক নয়৷ কোনও নাগরিক পুরনো কর ব্যবস্থায় থাকতে চাইলে সেই অনুযায়ীই কর দিতে পারবেন৷ ইউনিট এরিয়া সিস্টেম পাকাপাকিভাবে চালু হলে গ্রেডেশন ভিত্তিতে কোনও এলাকার কর নির্ণয় হবে৷ মূলত কোনও নাগরিক কোন এলাকায় থাকছেন তার ভিত্তিতেই এই কর নির্ধারণ হবে৷ তার ভিত্তিতেই ছ’টি গ্রেড৷ পরিষেবা কে কতটা পাচ্ছেন, সেটাই মূল বিবেচ্য৷ আলিপুর বা গার্ডেনরিচে একই কর হবে না৷ রাস্তা কতটা চওড়া, হাসপাতাল, কলেজ বা বাস-ট্রেন রুট কত কাছে, সেটাই নির্ণায়ক হবে৷ গত বারের বাজেটেই এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন মেয়র৷ এপ্রিল মাস থেকে চালুর কথা ছিল৷ তার আগে বিভিন্ন নাগরিকের মূল্যায়ন নেওয়া হয়৷
আগামী ২৩ জুন পুরসভার বাজেট প্রস্তাবে ইউনিট এরিয়া সিস্টেম চালুর কথা জানাবেন মেয়র৷ অক্টোবর থেকে এই ব্যবস্থা চালুর ব্যাপারে পুরসভার সংশ্লিষ্ট বিভাগও তৈরি৷ এশিয়ান ডেভলপমেণ্ট ব্যাঙ্ক বহু আগে পুরসভাকে এই ব্যবস্থা চালু করতে বলেছিল৷ এই ব্যবস্থা চালু হলে পুরসভার রাজস্ব আদায় বাড়ার পাশাপাশি স্বচ্ছতাও আসবে, কমবে ইন্সপেক্টর রাজ৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement