৩ বৈশাখ  ১৪২৮  শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রেল দপ্তরে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের আর্থিক সাহায্য প্রধানমন্ত্রীরও, ঘটনাস্থলে ফরেনসিক দল

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 9, 2021 8:57 am|    Updated: March 9, 2021 9:02 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগেই পাশে দাঁড়িয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। স্ট্র্যান্ড রোডে রেলের অফিসে অগ্নিকাণ্ডে মৃতদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য এবং পরিবারের এক সদস্যকে সরকারি চাকরি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন তিনি। এবার সেই পরিবারগুলির পাশে দাঁড়ালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও (PM Narendra Modi)। নিহতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকার আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছে তাঁর দপ্তর। ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে মৃতদের পরিবারের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৯ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে।

সোমবার সন্ধেয় আগুন লাগে স্ট্র্যান্ড রোডে পূর্ব রেলের সদরদপ্তর (Rail HQ) নিউ কয়লাঘাট বিল্ডিংয়ে। মুহূর্তের মধ্যে তা ছড়িয়ে পড়ে। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় সেই আগুন (Fire) নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা শুরু করেন দমকলের কর্মীরা। মাঝরাতে নিয়ন্ত্রণে আসে আগুন। এদিন সকালে কুলিং প্রসেস অর্থাৎ গোটা বিল্ডিং ঠাণ্ডা করার কাজ চলছে। যাতে কোনও অংশ থেকে নতুন করে না আগুন ছড়িয়ে পড়ে। ইতিমধ্যে এই ‘যুদ্ধে শহীদ’ হয়েছেন ৯ জন। এসএসকেএম হাসপাতালে রাখা হয়েছে ন’জনের দেহ। তাঁদের মধ্যে একজনের পরিচয় এখনও জানা যায়নি। কয়েকজনের দেহ এতটাই বিকৃত হয়ে গিয়েছে যে তাঁদের শনাক্ত করতে পারছেন না পরিবার। তাই পরিবারের সদস্যরা মৃতদের ডিএনএ পরীক্ষার দাবি জানিয়েছেন।

[আরও পড়ুন : অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে মুখ্যমন্ত্রী, মৃতের পরিবারকে অর্থসাহায্য ও চাকরির ঘোষণা]

মৃত ৯ জনের মধ্যে ৪ জন দমকলকর্মী বলে খবর। কীভাবে তাঁদের মৃত্যু হল, তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। সূত্রের খবর, অগ্নিনির্বাপনের সময় লিফট ব্যবহার করা নিষিদ্ধ। তারপরেও কেন ওই কর্মীরা লিফট ব্যবহার করলেন, তা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। ওই বিল্ডিংয়ের অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা নিয়েও প্রশ্ন তুলছেন কেউ কেউ। কীভাবে আগুন লাগল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। আজ অর্থাৎ মঙ্গলবারই ঘটনাস্থলে যাচ্ছে রাজ্যের ফরেনসিক দল। নমুনা সংগ্রহ করে আগুন লাগার কারণ খতিয়ে দেখবেন ওই দলের সদস্যরা। পাশাপাশি, অগ্নিকাণ্ডের তদন্তে উচ্চপর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছ। সেই কমিটিতে রয়েছেন বিভাগীয় প্রধানরা। অন্যদিকে এই আগুন লাগার ঘটনায় মামলা দায়ের হচ্ছে হেয়ার স্ট্রিট থানায়। পুলিশ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মামলা করছে নাকি মৃতদের পরিবারের তরফে মামলা করছেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

[আরও পড়ুন : আরও ভয়াবহ পূর্ব রেলের সদর দপ্তরের অগ্নিকাণ্ড, আগুনে ঝলসে অন্তত ৭ জনের মৃত্যু]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement