২৯ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

স্টাফ রিপোর্টার:  ক্লাস চলছে। নিচ্ছেন যাঁরা, তাঁরা কেউ পেশাদার শিক্ষক নন। কেউ দুঁদে পুলিশ অফিসার, কেউ ব্যাংকের পদস্থ কর্তা। আর পড়ুয়া যাঁরা, তাঁদের গড় বয়স ষাটের উপরে। বেশিরভাগই অবসরপ্রাপ্ত। অনেকেই জালিয়াতির শিকার হয়ে টাকা খুইয়েছেন।

[আরও পড়ুন: রাজ্যে হিন্দিভাষীদের জন্য পৃথক বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির উদ্যোগ, বিধানসভায় আসছে বিল]

মোবাইল মারফত জাল বিছানো ব্যাংক জালিয়াতদের টার্গেট মূলত প্রবীণ নাগরিকরা। যাঁরা প্রযুক্তির মারপ্যাঁচ বোঝেন না। ওটিপি চাইলে সরল বিশ্বাসে দিয়েও দেন। সেই মওকায় ঠকবাজরা অ্যাকাউন্ট সাফ করে দেয়। একের পর এক এমন ঘটনা দেখে এবার কোমর বেঁধেছে পুলিশ ও ব্যাংক। কীভাবে এই দুষ্টচক্রের ফাঁদ এড়ানো যায়, সে ব্যাপারে তাঁদের শিক্ষিত করার চেষ্টা শুরু হয়েছে। যার অঙ্গ হিসাবে বুধবার গড়িয়ার কে কে দাস কলেজে এক বেসরকারি ব্যাংকের সহায়তায় এই অভিনব ক্লাসের আয়োজন করেছিল পাটুলি থানা। উপস্থিত ছিলেন দেড়শোর বেশি শিক্ষার্থী। এটিএম থেকে টাকা তুলতে গিয়ে কারও উধাও হয়েছে ৪০ হাজার টাকা। কেউ সাইবার ক্যাফেতে নেট ব্যাংকিং করতে গিয়ে খুইয়েছেন সর্বস্ব। কেউ আবার ‘নাইজেরিয়ান ফ্রড’-এর শিকার।

খাবারের প্যাকেট আর জলের বোতল নিয়ে ক্লাস ছাড়ার আগে প্রবীণরা বলে গেলেন, “অনেক কিছু শিখলাম। এই ক্লাসটা আগে হলে এতটা ঠকতাম না। যাই হোক, বেটার লেট দ্যান নেভার।” কিছুদিন আগে পাটুলির এক প্রবীণ মহিলা এটিএম থেকে টাকা তুলতে গিয়ে প্রতারণার শিকার হন। খোয়া যায় ৪০ হাজার টাকা।

পাটুলি থানার পাশেই থাকেন বিজ্ঞানী বিষ্ণুপদ ঘোষ। একটি কেন্দ্রীয় গবেষণা সংস্থায় চাকরি করতেন। গত মে মাসে বিষ্ণুপদবাবুর চেক বইয়ের দু’টো পাতা চুরি করে ৩০ হাজার টাকা তুলে নিয়েছিল এক জালিয়াত। প্রথমে ‘স্লাইড শো’-এর মাধ্যমে প্রবীণদের সামনে ঠকবাজির নানা ধরন তুলে ধরেন ব্যাংকের দুই ম্যানেজার। মনোজকুমার সিং ও অনিরুদ্ধ বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁদের কথায়, “ব্যাংকের নাম করে প্রতারকরা আপনাদের ফোন করতে পারে। ‘ডেটা আপডেট’-এর নামে পিন নম্বর বা ওটিপি চাইতে পারে। স্মার্ট ফোনে লিংক পাঠিয়ে গিফট ভাউচারের লোভ দেখাতে পারে।”

[আরও পড়ুন:রাস্তায় ঘুরতে ঘুরতেই শুনুন মহিষাসুরমর্দিনী, পুজোয় উপহার দক্ষিণ দমদম পুরসভার]

মনোজবাবুদের পড়ানোর ফাঁকেই মাইক্রোফোন নিয়ে  প্রবীণদের সঙ্গে নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করে নেন পাটুলি থানার ওসি সৌম্য ঠাকুর। বলেন, “ডেবিট কার্ড ও ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারে অত্যন্ত সতর্ক হতে হবে। অপরিচিত কোনও লিংকে ক্লিক না করাই ভাল। ব্যাংকের লোগো দেওয়া কোনও পেজ এলেও নয়। মনে রাখতে হবে ঠকবাজ ও অপরাধী সবারই টার্গেট এখন প্রবীণরা।” এদিন প্রবীণদের ক্লাস নেন অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার প্রবীরকুমার সাহাও। বলেন, “পুরনো ফোন বিক্রির ব্যাপারে সাবধান হতে হবে। অপরাধীরা এই বাতিল ফোন থেকে অনেক তথ্য পাচ্ছে।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং